×

ভারতীয় সেনাও তৈরি, জিনপিং-এর চিনা ফৌজকে যুদ্ধ প্রস্তুতির পাল্টা জবাব অমিত শাহের 

 

নয়াদিল্লি: দিন কয়েক আগেই তাঁর দেশের সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকার বার্তা দিয়েছিলেন চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং৷ তাঁর এই মন্তব্য লাদাখ সীমান্তের উত্তেজনায় ফের ঘৃতাহুতি দেয়৷ এবার জিনপিং-এর এই মন্তব্যের জবাব দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ৷ ভারতীয় বাহিনী যে কোনও আগ্রাসনের মোক্ষম জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছে বলে হুঁশিয়ার করলেন তিনি৷

আরও পড়ুন- কীভাবে বিলি হবে করোনা টিকা? জানালেন প্রধানমন্ত্রী মোদী


শনিবার এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অমিত শাহ বলেন, ‘‘চিনকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়বে না ভারত৷’’ জিনপিং-এর মন্তব্যের কথা সরাসরি উল্লেখ না করেই শাহ বলেন, ‘‘ প্রতিটি দেশই যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকে৷ সে জন্যই তো দেশের সেনাবাহিনী থাকে৷ যাতে যে কোনও ধরনের আগ্রাসনের জবাব দেওয়া যায়৷ কোনও নির্দিষ্ট মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আমি কথাটা বলছি না৷ কিন্তু ভারতের প্রতিরক্ষাবাহিনী সর্বদা তৈরি রয়েছে৷’’ 


সেই সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন,  সীমান্তে উত্তেজনা প্রশমিত করে শান্তি ফেরাতে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে চিনের সঙ্গে আলোচনা চলছে৷ তাঁর কথায়, ‘‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে আমার এ বিষয়ে মন্তব্য করা উচিত নয়৷  তবে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পুনরাবৃত্তি করেই বলছি, আমরা সতর্ক রয়েছি, আমাদের কাছ থেকে এক ইঞ্চি জমিও কেড়ে নেওয়ার ক্ষমতা  কারও নেই। আমাদের উদ্দেশ্য মহান৷ কারও সামনে আমরা মাথা নত করব না৷’’  


প্রসঙ্গত, কয়েক দিন আগেই নিজের দেশের সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে বলেছিলেন চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং৷ দেশের প্রতি আনুগত্য ও ভরসাযোগ্য থাকার আহ্বানও জানিয়েছিলেন তিনি৷ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় উত্তেজনার মধ্যেই এহেন মন্তব্য করেন চিনা প্রেসিডেন্ট৷ তাঁর এই মন্তব্যের পাল্টা জবাবে ভারতের অবস্থানও স্পষ্ট করে দেন অমিত শাহ৷ সারা বিশ্ব ভারতের পাশে রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি৷ 

আরও পড়ুন- বিশ্ব ক্ষুধার দেশে ভারত আজ গদ্যময়! পেটের জ্বালায় ভারতকে এগিয়ে রাখল বাংলাদেশ-পাকিস্তান


গত মঙ্গলবার ভারত এবং চিনের মধ্যে সপ্তম দফার সামরিক স্তরে আলোচনা ইতিবাচক ও গঠনমূলক হয়েছে বলে দু’দেশের তরফে যৌথ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে৷ তবে সংঘাতের কেন্দ্র স্থল থেকে বাহিনী সরানো নিয়ে এখনও রফা সূত্র বার হয়নি৷ এ দিন অমিত শাহকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, লাদাখ এবং অরুণাচল নিয়ে চিনের অবস্থানের জবাবে তিব্বত ও তাইওয়ান নিয়ে ভারতের কূটনৈতিক অবস্থান কি বদলে যাবে? এর জবাবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'এই বিষয় নিয়ে এখানে কথা বলা সঠিক নয়৷ এটা অত্যন্ত জটিল বিষয়৷ এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করলে তার সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়তে পারে৷ সংসদে দাঁড়িয়ে ইতিমধ্যেই চিন নিয়ে ভারতের অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ আমার মনে হয় সেটাই যথেষ্ট৷ চিনের সঙ্গে আমরা আলোচনা চালাচ্ছি৷’’  

From around the web

Education

Headlines