×

নেতা ধোনিকে সরাতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন বিরাট, কী ভাবে শান্ত করেছিলেন শাস্ত্রী?

 
ধোনি কোহলি

নয়াদিল্লি:  মহেন্দ্র সিংহ ধোনি তখনও ভারতের অধিনায়ক। কিন্তু, তাঁকে সরিয়ে নেতৃত্ব পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন বিরাট কোহলি। সব ধরনের ক্রিকেটেই ভারতকে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য উদগ্রীব ছিলেন বিরাট। কিন্তু, তাহলে তো ধোনিকে সরাতে হয়! সেই সময় বিরাটকে শান্ত করেছিলেন কোচ রবি শাস্ত্রী। তাঁকে বলেছিলেন, ধোনির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাও৷ 

আরও পড়ুন- মহিলাদের আইপিএল দল কিনতে মরিয়া শাহরুখের কলকাতা, দৌড়ে আর কারা?


সম্প্রতি সেই ঘটনার কথা সামনে নিয়ে আসেন ভারতের ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর। তিনি বলেন, “২০১৬ সাল৷ সাদা বলের ক্রিকেটে ভারতের অধিনায়ক হয়ে ওঠার জন্য ব্যস্ত হয়ে উঠেছিলেন বিরাট। তিনি সেই সময় এমন কিছু কথা বলেছিল যা থেকে স্পষ্ট বোঝা গিয়েছিল, ও দলের ভার নিতে চাইছে৷ দেশের অধিনায়ক হতে চাইছে। সেটা বুঝতে পেরেই এক দিন সন্ধেবেলা বিরাটকে ডাকেন রবি শাস্ত্রী। বলেন, ‘ধোনি তোমাকে লাল বলের ক্রিকেটে অধিনায়ক করেছে। ধোনির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাও। সাদা বলের ক্রিকেটেও তোমাকে ও অধিনায়ক করবে, তবে সঠিক সময়ে। তুমি যদি এখন ধোনিকে সম্মান করতে না পারো তাহলে অধিনায়ক হওয়ার পর দল তোমাকে সম্মান করতে পারবে না।’”

শ্রীধর জানান, বিরাট সেদিন রবির কথা শুনেছিলেন। তিনি আরও জানান, শাস্ত্রী বিরাটকে বলেছিলেন, “নেতৃত্ব পাওয়ার জন্য দৌড়তে হবে না। ওটা তোমার কাছেই আসবে। বিরাট সেই উপদেশ শুনেছিলেন। এর বছর খানেকের মধ্যেই সাদা বলের ক্রিকেটে অধিনায়ক হন কোহলি।”

From around the web

Education

Headlines