×

সৌদির মাঠে রথী-মহারথীদের  ৯ গোলের লড়াইয়ে জয় ১০ জনের পিএসজি-র

 
রোনাল্ডো মেসি

দোহা: শুরুটা করেছিলেন মেসি৷ ইতি টানলেন এমবাপে৷ তার মাঝে ঝোড়ো হাওয়ার মতো বইলেন রোনাল্ডো৷ করলেন জোড়া গোল৷  জালে বল জড়াতে পারলেন না নেইমার৷ তবে তিনি গোটা ম্যাচেই ছিলেন উজ্জ্বল৷ এই ম্যাচে আরও পাঁচটি গোল হল বটে৷ তবে যে মাঠে চার তারকা থাকেন, সেখানে বাকিরা যে ফিকে পড়বেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷  এদিন ৫-৪ গোলে ম্যাচ জেতে মেসির প্যারিস সঁ জরমঁ বা পিএসজি। তবে খেলার হার-জিতকে সাইডলাইনের বাইরে রাখা হলে এই ম্যাচ দেখিয়ে দিল ফুটবলের জয়। 

আরও পড়ুন- সৌদিতে মুখোমুখি মেসি-রোনাল্ডো! কোথায়, কখন দেখবেন ম্যাচ? কোন চ্যালেঞ্চের মুখে CR7?

এদিন ম্যাচ ঘিরে শুরু থেকেই ছিল উন্মাদনা৷ মাঠে দর্শকাসন ছিল কানায় কানায় পূর্ণ। টানেলের মধ্যে থেকে যখন মেসি, রোনাল্ডোরা বেরিয়ে এলেন তখন হাততালিতে ফেটে পড়ছিল গোটা স্টেডিয়াম৷ । তার মাঝেই হঠাৎ আগমন ঘটল অমিতাভ বচ্চনের। অতিথি হয়ে এদিন মরুরাজ্যে উপস্থিত হয়েছিলেন তিনি। মাঠে দু’দলের ফুটবলারদের সঙ্গে হাত মেলাতে দেখা যায় তাঁকে৷ মেসি ও রোনাল্ডোর সঙ্গে হাত মেলানোর সময় তাঁকে যেন একটু বেশিই উত্তেজিত মনে হচ্ছিল।

এদিন গোটা ম্যাচেই ছিল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই৷ কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমিও ছাড়েনি৷ ফিফা বিশ্বকাপে যেখানে শেষ করেছিলেন, ঠিক সেখান থেকেই শুরু করলেন মেসি। ৩ মিনিটের মাথায় গোল করেন আর্জেন্টাইন তারকা৷ বক্সের বাইরে থেকে নেইমারের পাসে সৌদির জাতীয় দলের গোলরক্ষক আল-ওয়াইসকে হারিয়ে দিলেন মেসি।

তবে এদিন অনেক বেশি দাপট দেখিয়েছে পিএসজি। ১৭ মিনিটের মাথায় নেইমার একটা সহজ সুযোগ নষ্ট করার পরেই দেখা গেল মেসি-এমবাপে যুগলবন্দি। মেসির পাস থেকে গোল করেন এমবাপে। তবে অফসাইড হওয়ায় সেই গোল বাতিল হয়ে যায়।

৩৪ মিনিটের মাথায় ম্যাচে ফেরে সৌদি। বক্সের মধ্যে পিএসজি গোলরক্ষক নাভাস ফাউল করার পর পেনাল্টি থেকে গোল করেন রোনাল্ডো। আবার যেন ঝলসে ওঠেন সিএর৭৷  চার মিনিট পরে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন জুয়ান বার্নেট৷ ১০ জনের দল হয়ে যায় পিএসজি। । তাতে অবশ্য কোনও সমস্যা হয়নি প্যারিসের ক্লাবের৷ 

প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করে ফেলেন সিআর৭৷ এদিন ৬০ মিনিটের পর মেসি, এমবাপে, রোনাল্ডো ও নেমারকে তুলে নেওয়া হয়।  দলের প্রধান ফুটবলারদের নিয়ে কোচেরা যে বেশি ঝুঁকি নিতে চাননি, তা স্পষ্ট । ৭৭ মিনিটের মাথায় পিএসজির হয়ে আরও একটি গোল করেন হুগো একিটিকে। খেলার অতিরিক্ত সময়ে সৌদির ক্লাবের হয়ে চার নম্বর গোলটি করে দেন ট্যালিস্কা। তবে এতে পিএসজির জিততে অসুবিধা হয়নি৷  প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে ১০ জন মিলে ম্যাচ খেলেও জিতে যায় পিএসজি। তবে এদিন সব মিলিয়ে হল ফুটবলের জয়৷ যার সাক্ষী থাকলেন হাজার হাজার দর্শক।

From around the web

Education

Headlines