×

বিশ্বকাপ জয়ের পরই গুচ্ছ পোস্ট ইনস্টায়, কত টাকা আয় করলেন মেসি? প্রকাশ্যে টাকার অঙ্ক

 
মেসি

কলকাতা: শিহরণ জাগানো কাতার বিশ্বকাপ শেষ হয়েছে সেই আগের মাসে৷ কিন্তু, এখনও যেন তার রেশ রয়ে গিয়েছে৷ লুসাইল স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে দুই দেশের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে যে চিত্রনাট্য রচনা হয়েছিল, তা এখনও ফুটবলপ্রেমীদের মনে টাটকা৷ অনবদ্য সেই লড়াইয়ে অবশ্য শেষ হাসি হেসেছেন লিয়োনেল মেসি৷ সমাজ মাধ্যমে তিনি খুব বেশি সক্রিয় না হলেও, বিশ্বকাপ জেতার পর থেকে একের পর এক পোস্ট করতে দেখা গিয়েছে লিয়োকে। শেয়ার করেন বিশ্বকাপ জয় এবং তার পরের বিভিন্ন মুহূর্তের গুচ্ছ ছবি। কিছু ছবি আবার বিজ্ঞাপনী প্রচারের। তবে এই সব ইনস্টা পোস্ট থেকে বিপুল পরিমাণে অর্থ উপার্জন করেছেন আর্জেন্টিনার এই মহাতারকা। কিন্ত তা কত, জানেন? সম্প্রতি সেই অর্থের পরিমাণই প্রকাশ করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন- শুধু আইপিএল নয়, বিশ্বকাপেও হয়তো দেখা যাবে না পন্থকে! হতাশ ভক্তরা


বিশ্বকাপ জয়ের পরেই ট্রফি হাতে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন আর্জেন্টিনার অধিনায়ক। সেটি ছিল দু’দিনের মধ্যে ইনস্টাগ্রামে সবচেয়ে বেশি ‘লাইক’ পাওয়া ছবি। এখনও পর্যন্ত ওই ছবিটিতে সাত কোটি ৪০ লক্ষ ‘লাইক’ পড়েছে৷ এর পাশাপাশি বিভিন্ন সংস্থার হয়েও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন মেসি। ইনস্টাগ্রামে তাঁর ফলোয়ার্সের সংখ্যা এখন ৪১ কোটির বেশি৷ সেই বিপুল পরিমাণ সমর্থকের কাছে পৌঁছানোর জন্য পোস্ট পিছু মোটা অর্থ পান এই ফুটবল তারকা।


একটি ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, প্রতি পোস্ট পিছু প্রায় ১৫ কোটি টাকা পান এই বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক। সেই হিসেব মেলালে বিশ্বকাপের পর থেকে করা প্রতিটি পোস্ট মিলিয়ে প্রায় ৯ মিলিয়ন পাউন্ড বা ৮৮ কোটি টাকা ঝুলিতে এসেছে মেসির। প্যারিস সঁ জরমঁ থেকে বছরে মেসির আয় ৩০৩ কোটি টাকা৷ সেই তুলনায় দেখলে মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে বিজ্ঞাপন থেকে ৮৮ কোটি টাকা আয় নেহাত কম নয়৷ 

তবে দিন কয়েক আগে মেসির একটি ইনস্টাগ্রাম পোস্ট ঘিরে বিতর্ক মাথচাড়া দিয়েছিল। বিশ্বকাপের ট্রফি হাতে মেসির যে ছবিটি নেটপাড়ায় সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হয়েছিল, সেটি নাকি আসল ট্রফি নয়! ছিল নকল! আর্জেন্টিনার এক ভাস্কর নাকি সেই ট্রফিটি তৈরি করেছেন। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই বিতর্কের ঝড়৷ চমকে দেওয়ার মতো এই তথ্যটি প্রকাশ্যে আনে আর্জেন্টিনার সংবাদপত্র ‘ক্লারিন’।

বিশ্বকাপ জয়ের পর মেসি বিশ্বকাপ হাতে যে ছবি সমাজমাধ্যমে দিয়েছিলেন, সেটি সাড়ে সাত কোটিরও বেশি ‘লাইক’ পেয়েছে। এখনও পর্যন্ত ইনস্টাগ্রামে লাইকের বিচারের সেটিই সর্বাধিক জনপ্রিয়। এখন জানা গিয়েছে, সেই ছবিতে মেসির হাতে ধরা ট্রফিটি নকল। আর এই ছবিতেই পড়েছে সাড়ে সাত কোটির বেশি লাইক৷ কিন্তু, এটা কী ভাবে ঘটল? 

ক্লারিন জানান, পাওলা জুজুলিচ নামে আর্জেন্টিনার এক সমর্থক ওই নকল ট্রফিটি বানিয়েছিলেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, ‘‘বিশ্বকাপের আগে যারা ট্রফি বানায় তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই ট্রফিটি বানিয়েছিলেম৷ ছ’মাস সময় লেগেছিল ট্রফিটা বানাতে। চেয়েছিলাম ওই ট্রফিতে যেন আর্জেন্টিনার সমস্ত ফুটবলারদের সই থাকে। সই সংগ্রহ করতেই তিন বার মাঠে ফুটবলারদের হাতে ট্রফিটা দিই। প্রথমে লিয়ান্দ্রো পারেদেসের পরিবার সেটা পায় এবং পারেদেস তাতে সইও করে দেন।  দ্বিতীয়বার দেওয়ার পর ট্রফিটি ৪৫ মিনিট ধরে এক হাত থেকে আর এক হাতে ঘোরে। প্রত্যেকে এক বার করে ছুঁয়ে দেখেন সেটি এবং ফুটবলাররা তাতে সইই করেন৷ সেই সময় আমাকে বাকি সমর্থকরা বলেছিলেন, আমি হয়তো আর কাপটা হাতে পাব না৷ তবে আমি চাইছিলাম ওটা ফিরে পেতে। তাই এক ফুটবলারকে চেঁচিয়ে বলি, ‘পারেদেসের হাতে যে কাপটা রয়েছে সেটা আমার।’ পরে লাউতারো মার্তিনেস ওটা আমার হাতে ফেরত দিয়ে যান।’’

এই ঘটনাক্রমেই  নকল কাপটি গিয়েছিল মেসির হাতেও৷ সতীর্থরা যখন মেসিকে কাঁধে চড়িয়ে নাচছিলেন, তখন তাঁর হাতে ধরা ছিল ওই নকল কাপ৷ আসল ট্রফিটি ছিল অ্যাঙ্খেল দি মারিয়ার হাতে৷  তাঁকে এক নিরাপত্তারক্ষী তাঁকে জানান, তাঁর হাতে ধরা ট্রফিটি আসল৷ তিনি যোন সেটি কাউকে দিয়ে না দেন৷ এর পরই তিনি মেসিকে বিষয়টি জানান৷ 

From around the web

Education

Headlines