×

৩০০০ সালে বদলে যাবে মানব শরীরের গঠন, জানেন কেমন দেখতে হবে মানুষ?

 
মিন্ডি

ওয়াশিংটন: এটা প্রযুক্তির জমানা৷ স্মার্ট ফোন- ল্যাপটপ এখন আমাদের নিত্যদিনের সঙ্গী৷ মুঠো ফোনের পর্দায় চোখ রেখে কেটে যায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা৷ খাওয়া-দাওয়া অর্ডার করা থেকে অনলাইন কেনাকাটা, কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো, প্রযুক্তি ছাড়া এক পাও চলে না আমাদের৷ কিন্তু, অনেকেই মনে করেন, অতিরিক্ত প্রযুক্তি নির্ভরতাই মানব সভ্যতার জন্য বিপদ ডেকে আনবে। এমনকি বদলে যেতে পারে মানুষের চেহারার গঠনও। ৩০০০ সালে কেমন হবে মানুষের গঠন? বিবর্তনের একটি মডেল তৈরি করেছে ফ্রি ফরোয়ার্ডিং নামে একটি সংস্থার গবেষকরা৷ এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘মিন্ডি’ । এই গবেষকদের ভভিষ্যৎবাণী মিলে গেলে কেমন হবে মানবজাতির ভবিষ্যত? 

আরও পড়ুন- হঠাৎ ভিন্‌গ্রহীদের সঙ্গে মোলাকাত হলে কী বলবে মানুষ? সেই সাক্ষাতের প্রস্তুতি শুরু বিজ্ঞানীদের

ধনুকের মতো বাঁকা পিঠ-

গবেষকদের মতে, আমরা স্মার্টফোন, কম্পিউটার মনিটর বা ল্যাপটপের সামনে যে ভাবে বসে কাজ করি, যে ভাবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা স্মার্টফোনের মধ্যে ডুবে থাকি, তার উল্লেখযোগ্য প্রভাব পড়বে আমাদের চেহারার গঠনের উপর। অতিরিক্ত গেজেটের ব্যবহারে আমাদের পিঠ ধনুকের মতো বেঁকে যেতে পারে।

‘টেক্সট থাবা’

মিন্ডির বাহুতে দুটি উল্লেখযোগ্য শারীরবৃত্তীয় পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে। যা এককথায় স্মার্টফোন ব্যবহারের প্রভাব। গবেষকরা বলছেন,  ক্রমাগত হাতের মুঠোয় ফোন ধরে রাখার কারণে মানুষের আঙ্গুলগুলি ভাঁজ খেয়ে ‘টেক্সট ক্ল’ বা টেক্সট থাবা তৈরি হবে।

মিন্ডি

৯০-ডিগ্রি বাঁকা কনুই
অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহারে তৈরি হবে ‘স্মার্টফোন কনুই’। স্মার্টফোন ধরে রাখা এবং ব্যবহার করার সময় হাতের অবস্থান ৯০ ডিগ্রি থাকে৷ দীর্ঘদিনের অভ্যাসে কনুই চিরতরে ৯০ ডিগ্রি কোনে বেঁকে যাবে।

‘প্রযুক্তি ঘাড়’

গবেষকদের মতে স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপের স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকতে থাকতে ঘাড় চিরতরে বেঁকে যেতে পারে। গবেষকরা এর নাম দিয়েছেন ‘টেক নেক’ বা ‘প্রযুক্তি ঘাড়’৷ 

mindi

মাথার খুলি মোটা

গবেষকরা জানাচ্ছে, স্মার্টফোন থেকে যে রেডিওফ্রিকোয়েন্সি নির্গত হয়, তা মস্তিষ্কের সংস্পর্শে এলে স্বাস্থ্যের উপর গুরুতর প্রভাব ফেলবে৷ যা নিয়ে উদ্বেগ বাড়ছে। এই ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে মাথার খুলি আরও মোটা হয়ে যেতে পারে।

ছোট মস্তিষ্ক 

বিবর্তনের এখানেই শেষ নয়৷ গবেষকের কথায়, মিন্ডির চেহারার শেষ যে পরিবর্তনটি আসবে তা খালি চোখে ধরা দেবে না। তাদের দাবি, প্রযুক্তির থাবায় মানুষের মাথার খুলি শুধু মোটাই হবে না,  মস্তিষ্কের আকারেও পরিবর্তন ঘটাবে। মস্তিষ্কের আকার খানের চেয়ে অনেকটাই ছোট হয়ে যাবে৷ 


 

From around the web

Education

Headlines