×

রাহুল ‘এহসান ফরামোশ’, এক যোগো আক্রমণ বিজেপি নেতৃত্বের

 

নয়াদিল্লি:  ভারত-চিন সীমান্তের উত্তেজনা হোক বা সাম্প্রতিক কৃষক আইন, একাধিক ইস্যুতে বারবার কেন্দ্রীর সরকারকে তুলোধোনা করেছেন রাহুল গান্ধী৷ এবার রাহুল গান্ধীকে কাঠগড়ায় তুলল বিজেপি নেতৃত্ব৷ তাঁর বিরুদ্ধে একযোগে আক্রমণ শানালেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা, শিবরাজ সিং চৌহান, যোগী আদিত্যনাথ এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর৷ ‘সুবিধাবাদী’ ও ‘অকৃতজ্ঞ’ বলে রাহুলের বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন তাঁরা৷ বিজেপি’র অভিযোগ, উত্তর ও দক্ষিণের মধ্যে বিভাজন তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছেন ওয়ানাড়ের সাংসদ৷ 

আরও পড়ুন-  ৪০ লাখ ট্র্যাক্টর নিয়ে পার্লামেন্ট ঘেরাও! বড় হুমকি কৃষক সংগঠনের


রাহুল গান্ধীর বর্তমান লোকসভা কেন্দ্র ওয়ানাড়ের সঙ্গে তাঁর পূর্ববর্তী কেন্দ্র আমেঠির তুলনা করাকে কেন্দ্র করে গান্ধী বংশের তীব্র নিন্দা করলেন বিজেপি’র শীর্ষ স্থানীয় নেতারা৷ তাঁদের দাবি, এহেন মন্তব্য করে বিভেদমূলক মানসিকতার পরিচয় দিয়েছেন সোনিয়া তনয়৷ এদিন টুইট করে নাড্ডা বলেন, ‘‘উত্তরের বিরুদ্ধে তিনি বিষোদগার করছেন৷ অথচ কিছু দিন আগে পর্যন্ত তিনি উত্তরপূর্বে ছিলেন৷ তিনি পশ্চিম ভারতের বিরুদ্ধেও বিষ উগড়েছেন৷ উনি এখন দক্ষিণের সাংসদ৷ তাই উত্তরের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন৷ এই  বিভেদমূলক রাজনীতি আর চলবে না রাহুলজি!’’

প্রসঙ্গত, ভোটমুখী কেরলে ‘ঐশ্বর্য কেরল যাত্রা’র সমাপ্তি অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় রাহুল জানান, ১৫ বছর উত্তরভারতে সাংসদ ছিলেন তিনি৷ সেখানে ভিন্ন ধরনের রাজনীতি দেখেছেন৷ কিন্তু কেরলে এসে তিনি অনেকটাই স্বস্তি পেয়েছেন৷ তিনি আরও বলেন, ‘‘এখানাকার মানুষ শুধু কোনও ইস্যু নিয়ে আগ্রহীই নয়, তারা সেই ইস্যুটির গভীরে যেতে পছন্দ করেন৷ আমি একবার আমেরিকায় কিছু ছাত্রছাত্রীর সঙ্গে কথা বলছিলাম৷ তখন তাঁদেরও বলেছিলাম, আমার কেরলে যেতে খুবই ভালোলাগে৷ এখানে আমি অনেক কিছু শিখতে পারি৷ আর এই অভিজ্ঞতা খুবই আনন্দের৷’’


এর পরেই রাহুলকে এক হাত নেন শিবরাজ সিং চৌহান৷ টুইট করে তিনি বলেন, ‘‘যখনই রাহুল পা রেখেছেন, কংগ্রেস ধরাশায়ী হয়েছে৷ রাহুলজি  উত্তর ভারতকে কংগ্রেস মুক্ত করেছিলেন এখন দক্ষিণের দিকে যাত্রা করেছেন৷ আমাদের জন্য সমগ্র দেশ এক৷ কংগ্রেস দেশকে উত্তর-দক্ষিণে ভাগ করতে চায়৷ কিন্তু মানুষ এই প্রচেষ্টা সফল হতে দেবে না৷’’ 

আরও পড়ুন-  অবশেষে মুক্তি! জামিন পেলেন টুলকিট মামলায় ধৃত দিশা রবি


রাহুলকে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানিও৷ তিনি বলেন, ‘‘এটা রাহুলের নয়, ওঁর বিভেদমূলক চিন্তার প্রকাশ৷ এই কংগ্রেসই ভারত-পাকিস্তান ভাগ করেছিল৷ এবার কি উত্তর-দক্ষিণ ভাগ করতে চায়?’’ যোগী আদিত্যনাথ আবার বলেন, সস্তা রাজনীতি করছেন রাহুল গান্ধী। তোপ দেগে তিনি বলেন, ‘‘রাহুলজি, একসময় অটলজি বলতেন ভারত শুধু এক টুকরো জমি নয়, ভারত হল জীবন্ত ‘রাষ্ট্রপুরুষ’৷ দয়া করে একে ভাগ করবেন না৷’’     
 

From around the web

Education

Headlines