×

'বাইবেল বেল্টে' থেকেও হিন্দুধর্ম গ্রহণ অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জুলিয়া রবার্টসের, কেন এই সিদ্ধান্ত?

 
জুলিয়া

কলকাতা: যাঁরা হলিউড প্রেমী, তাঁদের কাছে জুলিয়া রবার্টস এক অতি পরিচিত নাম৷ তবে শুধু হলিউড প্রেমীদের কাছেই নয়, বলা ভালো আপামর সিনেপ্রেমীর কাছেই জনপ্রিয় এই প্রিটি ওম্যান৷ নটিং হিল, ওশানস ইলেভেন, ওয়ান্ডার, রানঅ্যাওয়ে ব্রাইডের মতো ছবিতে অভিনয় করে ঝড় তুলেছেন জুলিয়া। একের পর এক সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। বেশ ভালই ছন্দে কাটছিল এই হলিউড ডিভার জীবন৷ তবে ‘ইট প্রে লাভ’ ছবির শ্যুটিংয়ের পর থেকেই হঠাৎ করে তাঁর জীবনে ঘটে গেল উলট-পুরাণ৷ সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে নিয়ে একটি গুঞ্জন ছড়িয়েছে৷ জুলিয়ার ছবি শেয়ার করে তাতে লেখা হয়েছে, "খ্রিস্টানধর্ম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্মগ্রহণ করলেন হলিউডের অস্কারজয়ী অভিনেত্রী জুলিয়া রবার্টস৷’’

আরও পড়ুন- কাজ করেছেন বলিউড তারকাদের সঙ্গে, এখন কী করেন ‘করিশ্মা কা করিশ্মা’র ছোট্ট মেয়েটি?

আসলে ‘ইট প্রে লাভ’ ছবির শুটিংয়ে ভারতে এসেছিলেন জুলিয়া। সেই সময় এ দেশের সভ্যতা-সংস্কৃতির প্রতি আকৃষ্ট হন তিনি। হিন্দুধর্মের প্রতি একটা আবেগ, একটা টান জন্মায় তাঁর৷ সেই টানেই খ্রিস্ট ধর্ম ছেড়ে হিন্দু ধর্মের উপাসক হয়ে ওঠেন জুলিয়া৷ তাঁর এই সিদ্ধান্ত অবাক করে দেয় ভারত-আমেরিকা সহ গোটা বিশ্বকে৷ 


১৯৬৭ সালে আমেরিকার জর্জিয়ায় জন্ম জুলিয়া রবার্টসের। সেখানেই বেড়ে ওঠেন। বলা ভালো, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের 'বাইবেল বেলট' এর মধ্যেই পড়েন জর্জিয়া। অভিনেত্রীর মা ক্যাথলিক আর বাবা ব্যাপটিস্ট। ফলত ছোট থেকেই পরিবারে খ্রিস্ট ধর্মের প্রভাব ছিল। কিন্তু, জুলিয়া নাকি বরাবরই হিন্দু ধর্মের উপাসনা করতে চেয়েছিলেন। হিন্দুধর্মের প্রতি ছিল তাঁর দুর্বার আকর্ষণ৷ এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একবার জুলিয়া বলেছিলেন, "হিন্দু ধর্মের প্রতি বরাবরই একটা আকর্ষণ ছিল৷  ভারতে যাওয়ার পর সে দেশের সংস্কৃতি আমাকে ধর্মান্তরে উদ্বুদ্ধ করে।" 

জুলিয়া আরও বলেন, "আমি একবার এক হিন্দু গুরুর ছবি দেখেছিলাম। তাঁকে চিনতামও না। তিনি কে সেটা জানতামও না। তবে তাঁকে দেখেই হিন্দু ধর্মের প্রতি আকর্ষণ তৈরি হয়। তাঁর ছবি শেয়ার করার পরেই সংবাদমাধ্যমে আলোচনা শুরু হয়।" এবারে প্রশ্ন, জানেন কি কোন গুরুকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন এই অস্কারজয়ী অভিনেত্রী? কাকে দেখে হিন্দু ধর্মের উপাসক হয়ে উঠেছিলেন তিনি? সেই গুরু আর কেউ নন তিনি হলেন নিম কারোলি বাবা। তিনি ছিলেন হনুমান ভক্ত৷ মথুরায় তাঁর আশ্রম। ছয় এবং সাতের দশকে আমেরিকা থেকে আগত বহু বিদেশিই নিম কারোলি বাবার সান্নিধ্যে এসে হিন্দু ধর্মের উপাসক হয়ে উঠেছিলেন৷ জুলিয়াও তাঁদের দলে ছিলেন।

তবে সম্প্রতি হিন্দুধর্ম গ্রহণ করেননি জুলিয়া৷ বহু বছর আগেই তিনি ধর্মান্তরিত হন৷ তবে নতুন করে এই খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে৷ এখন নিয়মিত হিন্দু ধর্মের চর্চা করেন ৫৫ বছরের অ্যাকাডেমি পুরস্কার জয়ী অভিনেত্রী জুলিয়া৷ স্বামী এবং তিন সন্তানকে নিয়ে নিয়মিত মন্দিরে যান। সে কথা এক সাক্ষাৎকারে নিজেই জানিয়েছিলেন অভিনেত্রী। বলেছিলেন, "আমরা সপরিবারে নিয়মিত মন্দিরে গিয়ে পুজো করি। মন্ত্র উচ্চারণ করি। আমাদের মন ভালো হয়ে যায়। বিশ্বাস করুন।"


 

From around the web

Education

Headlines