×

জল নেই, বাড়ি নেই! মুখ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে ক্ষোভ উগরে দিলেন আদিবাসীরা

 
মমতা

 

কলকাতা: বেলপাহাড়িয় সভা শেষে আদিবাসীদের মুখোমুখি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মুখ্যমন্ত্রীকে সামনে পেয়ে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন তাঁরা৷ জানালেন নিজদের সমস্যার কথা৷ গ্রামবাসীদের অভিযোগ, এখানে পানীয় জল নেই৷  ২ কিলোমিটার দূর থেকে পানীয় জল বয়ে আনতে হয় তাঁদের৷ অভিযোগ শুনে অবশ্য ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন মমতা৷ 

আরও পড়ুন- পর্ষদ নিজেকে হাইকোর্ট মনে করছে? সভাপতির হাজিরার নির্দেশ প্রত্যাহার করেও 'ধমক'


এদিন মুখ্যমন্ত্রীকে সামনে পেয়েই ঘিরে ধরেন আদাবাসীরা৷ তাঁদের প্রশ্ন, দিদি আমরা ঘর পাইনি৷ কবে পাব? জবাবে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ২০২৪-এর মধ্যে ঘর হবে৷ ১০০ দিনের কাজের টাকা দিল্লি বন্ধ রেখেছে৷ টাকার জন্য আমরা রোজই লড়াই করছি৷ ঘরের টাকাও বন্ধ রেখেছে৷ টাকা পেলেই ঘর দিয়ে দেওয়া হবে৷ এর জন্য রাজ্য সরকার অনবরত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে৷  


বেলপাহাড়ি অঞ্চলে মোট চারটি জায়গায় গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ আদিবাসীরা তাঁকে সামনে পেয়েই পানীয় জলের সমস্যার কথা জানান৷ ঘর না মেলায় অভিযোগ করেন৷ সব অভিযোগ শুনেই তাঁর জবাব, কেন্দ্র টাকা দিচ্ছে না৷ বরাদ্দ এলেই জল সংযোগ হয়ে যাবে৷ ২০২৪ সালের মধ্যে সর্বত্র দলের পাইপ পৌঁছে যাবে৷ 


এ প্রসঙ্গে বিজেপি’র প্রাক্তন রাজা সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, গত ১২ বছর ধরে টাকা দিচ্ছেন না, এমনটা তো বলতে পারবেন না৷ এত বছরে কেন কিছু করলেন না৷ তিনি আদিবাসী সমাজের তাঁর দিক থেকে মুখ ফিরিয়েছে৷ পঞ্চায়েত, লোকসভা, বিধানসভায় তাঁকে হারিয়েছে৷ এখন ক্ষমা চেয়ে ভোট চাইতে গিয়েছেন৷  কিন্তু তাঁরা দেবেন না৷ এর উপর তাঁর চিন্তা হয়েছে, আদিবাসী সমাজের এক প্রতিনিধি রাষ্ট্রপতি হয়েছেন৷ তাঁর মন্ত্রী অখিল গিরি তাঁকে যে ভাবে অপমান করেছেন তাতে আরও আহত হয়েছে আদিবাসী সমাজ৷ 

From around the web

Education

Headlines