×

'কেন চাইব না...', নিয়োগ দুর্নীতিকাণ্ডে কুন্তলের থেকে টাকা নেওয়ার কথা স্বীকার তাপসের!

 
কুন্তল তাপস

কলকাতা: দুর্নীতি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের  তাপস মণ্ডলকে সিজিও কমপ্লেক্সে তলব করল ইডি৷মঙ্গলবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছন তাপস৷ এদিন কুন্তল ও তাপসকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করার সম্ভাবনা রয়েছে৷ এদিকে টাকা চাওয়া প্রসঙ্গে এগিন সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অপসারিত সভাপতি মানিক ভট্টাচার্য ‘ঘনিষ্ঠ’ তাপস বলেন, "টাকা চাইব না কেন? যে টাকা দিয়েছিল, সেই টাকাই ফেরত চাইছি।" তবে হুগলি জেলার তৃণমূল যুবনেতা কুন্তল ঘোষের  তোলা একাধিক অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তাপস। 

আরও পড়ুন- ঘন কুয়াশায় অদৃশ্য হাওড়া ব্রিজ, 'ভ্যানিশ' রাস্তাঘাট, সাদা চাদরে ঢাকা পড়ল কলকাতা


অভিযোগ উঠেছে, কুন্তলের ফ্ল্যাটে গিয়ে থাকতেন তাপস৷ সেখানেই নাকি যাবতীয় টাকার লেনদেন করতেন। এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে দাবি তাপসের। ইডি সূত্রে খবর,  মঙ্গলবার প্রথমে আলাদাভাবে তাপস মণ্ডলকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তাঁর বয়ান রেকর্ডও করা হবে। বেলা ১২টার পর কুন্তলের সঙ্গে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হবে তাঁকে। আদৌ কি তাপস মণ্ডল কুন্তলকে ব্ল্যাকমেল করে টাকা তুলতেন? সেই তথ্য জানার চেষ্টা করবেন তদন্তকারী অফিসাররা৷ 


নিয়োগ দুর্নীতিতে ইতিমধ্যেই তদন্তকারীদের হাতে উঠে এসেছে কুন্তল, গোপাল দলপতি, নীলাদ্রি ঘোষ-সহ একাধিক ব্যক্তির নাম। যা নিয়ে নতুন করে রহস্য দানা বেধেছে৷ দুর্নীতিতে তাঁদের ভূমিকা কী ছিল, তা খতিয়ে দেখছেম তদন্তকারীরা। এদিন সিজিও কমপ্লেক্সে ঢোকার সময়েই তাপসকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তিনি নীলাদ্রি নামের কাউকে চেনেন কিনা। কার্যত তাতে সম্মতি জানিয়েই তাপস বলেন, “নীলাদ্রি আমার পরিচিত। আমার কাছে আসে, এই…। তবে আমি কোনওদিনও কুন্তলের ফ্ল্যাটে থাকিনি।” কিন্তু টাকা নিয়েছিলেন কী? প্রশ্ন শুনেই তিনি বলেন, “টাকা তো চাইবই, চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে ও যে টাকা নিয়েছিল, সেই টাকাই আমি চেয়েছি। ” 

From around the web

Education

Headlines