×

দিল্লিতে ইডি দফতরে হাজিরা সুকন্যার, সায়গলের মুখোমুখি বসিয়ে জেরার সম্ভাবনা কেষ্টা-কন্যাকে

 
সুকন্যা

নয়াদিল্লি:  কথা মতো দিল্লির এপিজে আবদুল কালাম রোডে ইডির সদর দফতরে হাজিরা দিলেন বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের কন্যা সুকন্যা মণ্ডল। সেখানেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা৷ বুধবার সকালে মুখে কালো মাস্ক পরে ইডির দফতরে পৌঁছন তিনি৷

আরও পড়ুন- ডানলপের বহুতলে ‘বিস্ফোরণ’ থেকে বিধ্বংসী আগুন, ফ্ল্যাটে আটকে একাধিক মহিলা-শিশু

এদিন ইডি-র দফতরে পৌঁছনোর পর সেখানে বেশ কিছু ক্ষণ তাঁকে বসিয়ে রাখা হয়৷ তার পর নিয়ে যাওয়া হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য৷ দুপুর পর্যন্ত জিজ্ঞাসাবাদ চলতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। গরু পাচারকাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যেই সুকন্যাকে দিল্লিতে তলব করেছে ইডি। গরু পাচার মামলার তদন্তে নেমে সুকন্যার কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি এবং একাধিক কোম্পানির খোঁজ পেয়েছেন ইডি আধিকারিকরা৷ সেই বিষয়েই তাঁকে প্রশ্ন করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের পর ইডি হেফাজতে থাকা অনুব্রত মণ্ডলের একদা ছায়াসঙ্গী তথা দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের মুখোমুখি বসিয়ে সুকন্যাকে জেরা করা হতে পারে বলেও ইডি সূত্রে খবর।

এর আগে ২৮ অক্টোবর কেষ্ট-কন্যাকে তলব করা হয়েছিল৷ সেই তলবে সাড়া দেননি সুকন্যা৷ তবে এবার সাড়া দেবেন বলে আগেই জানিয়েছিলেন৷ গরু পাচার মামলায় যে বেশ কয়েক জনকে তলব করা হবে সেকথা আগেই আদালতে জানিয়েছিল ইডি। এর পরই তলব করা হয় কেষ্ট-কন্যাকে। সুকন্যার পাশাপাশি সায়গলের মা এবং স্ত্রীকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে৷


কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের অনুমান, গরু পাচার কোটি কোটি টাকা উপার্জন করেছেন অনুব্রত৷ সেই টাকা বিভিন্ন জায়গা থেকে লেনদেন হয়েছে। কোথা থেকে এই বিপুল পরিমাণ টাকা এল? কাদের কাদের কাছেই বা গিয়েছে? সেটাই বুঝে নিতে চাইছে ইডি৷ এই টাকা সায়গলের মাধ্যমে পাচার করা হত বলেও জানতে পেরেছেন ইডি আধিকারিকরা।
 


 

From around the web

Education

Headlines