×

বিচারপতির কড়া নির্দেশ ছিল, কাঁথি ধর্ষণ মামলায় ডিভিশন বেঞ্চে তৃণমূল নেতা

 
High Court is displeased with state govt. রাজ্যকে ভর্তসনা হাইকোর্টের।

কলকাতা: কাঁথির নাবালিকা ধর্ষণের মামলায় এবার নতুন মোড়। মঙ্গলবার এই ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূল ছাত্রনেতাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। নির্দেশ এসেছিল বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার থেকে। এবার সেই নির্দেশ চ্যালেঞ্জ করেই কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হলেন তৃণমূলের ওই ছাত্রনেতা। জানা গিয়েছে, এই মামলা দায়েরের অনুমতি দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।

আরও পড়ুন- ২ লক্ষ ২৯ হাজার কোটি নয়ছয়ের অভিযোগ রাজ্যের বিরুদ্ধে, মামলায় যুক্ত হবে CAG

মঙ্গলবার এই মামলার শুনানিতে সরাসরি পুলিশকে নিশানা করেছিলেন হাইকোর্টের বিচারপতি। তাঁর বক্তব্য ছিল, অভিযুক্ত কোথায় আছে তাও পুলিশ জানে, কিন্তু ইচ্ছে করে ধরছে না! তাঁর বলতে কোনও দ্বিধা নেই যে পুলিশ অভিযুক্ত সম্পর্কে দুর্বলতা দেখাচ্ছে। মূলত এই মামলায় তদন্তকারী অফিসারের ভূমিকায় বিরক্ত বিচারপতি। এবার ওই অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা নিজেই আদালতের দারস্থ হলেন। তাঁর বিরুদ্ধে শুধু যে ধর্ষণের অভিযোগ আছে এমনটা নয়। মামলা তুলে নিতে চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি। এছাড়া ফোনে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, বাড়িতেও লোক পাঠিয়ে হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি করেছেন নির্যাতিতার বাবা।

তৃণমূল ছাত্রনেতার বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ধর্ষণ করার। নাবালিকাকে দিঘার হোটেলে ডেকে পাঠিয়ে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। নির্যাতিতার মা অভিযোগে জানিয়েছেন, ধর্ষণের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ভিডিয়ো ভাইরাল করে দেওয়ার ভয় দেখানো হয়েছিল তাঁর মেয়েকে। পরিবারের দাবি, যে দিন থেকে এই ঘটনা ঘটেছে সেদিন থেকেই তারা আতঙ্কে আছেন।

From around the web

Education

Headlines