×

সঠিক সময়ে ডিএ! অগ্রাধিকারের কথা জানালেন শোভনদেব

 
শোভন

কলকাতা: ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারের চাপ ক্রমশ বাড়ছে। বিভিন্ন সংগঠন হুঁশিয়ারি দিয়েছে বৃহৎ আন্দোলনের। অন্যদিকে, কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে রাজ্য। এই ইস্যুতে অবশেষে কী হয় তার দিকেই তাকিয়ে সকলে। তবে বিতর্কের মাঝেই ডিএ নিয়ে বড় মন্তব্য করলেন রাজ্যের মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। তাঁর আশার বাণী, সঠিক সময় মুখ্যমন্ত্রী সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা দেবেন। কিন্তু এখন বিষয় আগে ভাবতে হচ্ছে। সেটি কী, তাও জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন- আঁধার কাটবে? DA মামলায় হাইকোর্টে হলফনামা জমা দিল রাজ্য

মন্ত্রীর কথায়, রাজ্য সরকার যে প্রকল্পগুলির মাধ্যমে অসংগঠিত ক্ষেত্রের মানুষকে স্বাবলম্বী করে তুলেছে সেগুলো বন্ধ করে রাখা সম্ভব নয়। মুখ্যমন্ত্রী নিজেও চান সকল সরকারি কর্মীরা ভাতা পান। কিন্তু রাজ্যের বাকি মানুষের কথাও তাঁকে ভাবতে হয়। এই মুহূর্তের আর্থিক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এগোতে হচ্ছে। তাই এখন রাজ্যের গরিব মানুষদের কথাই আগে ভাবা হচ্ছে। শোভনদেবের কথায়, মুখ্যমন্ত্রী অবশ্যই ডিএ দেবেন। তবে তা সঠিক সময়ে। তবে এখন সরকারের অগ্রাধিকার ভিন্ন। আরও স্পষ্ট করে তিনি বলেছেন, যারা ডিএ পাচ্ছেন না, তারা দু'বেলা অন্তত খেতে পারছেন। কিন্তু বাকিদের ক্ষেত্রে তা হচ্ছে না। তাদের কথাই আগে ভাবছেন মুখ্যমন্ত্রী।

কেন্দ্রীয় হারে ডিএ-র দাবিতে রাজ্যের সরকারি কর্মচারী সংগঠনগুলি দীর্ঘদিন ধরেই লড়াই চালিয়ে আসছে। গত মে মাসের ২০ তারিখ হাই কোর্ট তার নির্দেশে জানিয়েছিল, তিন মাসের মধ্যে রাজ্য সরকারের কর্মচারীদের বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মিটিয়ে দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। সেই নির্দেশ মোতাবেক রাজ্যের সরকারি কর্মীদের ৩১ শতাংশ হারে ডিএ দিতে হবে। কিন্ত, সেই সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পরও ডিএ দেয়নি রাজ্য সরকার৷ 

From around the web

Education

Headlines