×

'বাংলাকে অসম্মান করার জন্য ভুল বার্তা', বন্দে ভারত ইস্যুতে ক্ষুব্ধ মমতা

 
mamata

কলকাতা: বন্দে ভারতে এক্সপ্রেসে পাথর ছোড়া ইস্যুতে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে নিশানা করেছিল বিজেপি। তাদের তরফে এমনও দাবি করা হয়েছিল যে, আরও দুটি বন্দে ভারত ট্রেন বাংলাকে দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে ভেবে দেখবে রেল। বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বক্তব্য ছিল, বাংলা কিছু ভালো পাওয়ার যোগ্য নয়। কিন্তু রেল যে হামলার ফুটেজ প্রকাশ করেছে তাতে দেখা গিয়েছে, ট্রেনে বাংলা থেকে নয়, বিহার থেকে হামলা করা হয়েছিল। এই ইস্যুতেই এবার চরম ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন- মরসুমের শীতলতম দিন! রাজ্য জুড়ে জাঁকিয়ে শীত, কতটা শীতল কলকাতা?

এদিন এই ইস্যুতে মমতা দাবি করেন, বাংলাকে বদনাম করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যদিও তা যে বরদাস্ত করা হবে না তাও স্পষ্ট করে দেন। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, ''তিনদিন আমাদের বিরুদ্ধে বাংলার বদনাম হয়েছে। যারা বদনাম করেছেন এবং ভুয়ো খবর দেখিয়েছেন, বাংলার মানুষকে ভুল বার্তা দিয়েছেন বাংলাকে অসম্মান করবার, তাদের বিরুদ্ধে আইন আইনের পথে চলবে। এটা বাংলায় ঘটেনি, বিহারে ঘটেছে।'' এই প্রসঙ্গে মমতা বিজেপি সরকারকে আরও কটাক্ষ করে বলেন, বিহারের মানুষের ক্ষোভ থাকতেই পারে। আর বন্দে ভারত মানে হল একটা পুরনো ট্রেনকে রঙ করে নতুন করে দিয়েছে। মমতা এও দাবি করেছেন, তাঁর সময়ে তিনি বছরে অন্তত ১০০ টা ট্রেন দিতেন। আর এখন ১১ বছরে একটাও নতুন ট্রেন দেওয়া হয়নি।

বর্তমানে ট্রেনে হামলার ফুটেজ পুরো বিষয়টাই ব্যুমেরাং করে দিয়েছে বিজেপি নেতাদের বিপক্ষে। তাই 'ড্যামেজ কন্ট্রোল' করতে আসরে নামতে হয়েছে স্বয়ং বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। তিনি এই বিষয় নিয়ে মুখ খুলে বলেন, বিহার থেকে এমন ঘটনা ঘটেছে তা জানবেন কী করে? তাঁর এই মন্তব্যের পরেই আরও খোঁচা দিতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

From around the web

Education

Headlines