×

তৃণমূল কর্মীর চড় মারা সমর্থন করেননি, কী বললেন ফিরহাদ

 
firhad

কলকাতা: উত্তর ২৪ পরগনার দত্তপুকুর থানার অন্তর্গত ইছাপুর নীলগঞ্জ পঞ্চায়েতের সাইবনা এলাকায় ‘দিদির সুরক্ষা কবচ’ কর্মসূচিতে অভিযোগ জানাতে গিয়ে তৃণমূলের এক কর্মীর কাছে চড় খেয়েছেন এক ব্যক্তি। যে সময়ে এই ঘটনা ঘটে তখন কাছাকাছিই ছিলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী রথীন ঘোষ। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনা নিয়ে তোলপাড় পড়ে গিয়েছে গোটা রাজ্যজুড়ে। এই ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই মুখ খুলেছেন রাজ্যের অন্য এক মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন- দক্ষিণেশ্বরে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি, জখন এক সিভিক ভলেন্টিয়ার

কলকাতার মহানাগরিকের কথায়, একটা বিষয়ে স্পষ্ট এখন 'দিদির দূত'রা কোথাও গেলে বিক্ষোভ দেখানো খেলা হয়ে গিয়েছে। এই বিক্ষোভ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই করা হচ্ছে। কিন্তু দত্তপুকুরে যা ঘটেছে তা কোনও ভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। যে করেছে ভুল করেছে। তবে তিনি এটাও স্পষ্ট করেন, মজা করার জন্য এখন বিক্ষোভ দেখানো চলছে, যা গণতন্ত্রের জন্য ভালো নয়।

প্রসঙ্গত, নিজেদের কিছু দাবিদাওয়া নিয়ে মন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলেন স্থানীয় একটি মন্দির কমিটির কয়েক জন সদস্য। তাদের মধ্যে ছিল এই সাগর বিশ্বাস। জানা গিয়েছে, ইনি আদতে স্থানীয় মন্দির কমিটির এক জন সদস্য। সংবাদমাধ্যমে নিজেই এই কথা বলেছেন তিনি। সাগর জানান, মন্দিরের সামনের রাস্তা এবং নাটমন্দির নিয়ে তৈরি হওয়া কিছু সমস্যার কথা বলতে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু তাকে কেন মারা হল তা তিনি বুঝতে পারছেন না। তবে তার অভিযোগ, সংবাদমাধ্যমের সামনে যাতে তিনি কোনও ভাবে মুখ না খোলেন, সে কারণেই ওই তৃণমূল কর্মীরা তাঁকে হুমকি দেন।

From around the web

Education

Headlines