×

৮৩ শতাংশ আক্রান্ত 'ডেল্টা' প্রজাতিতে! করোনার নতুন ঢেউ এই দেশে?

 
India's pollution season could serve a double blow during Covid-19

ওয়াশিংটন: বিশেষজ্ঞরা দাবি করেছিল যে ভারতে করোনাভাইরাস তৃতীয় ঢেউ আসবে ডেল্টা প্রজাতির কারণে। তবে এই মুহূর্তে আমেরিকার যে চিত্র ধরা পড়ছে তাতে হয়তো সেখানেই সবথেকে বেশি ভয়ঙ্কর রূপ নিয়ে নিয়েছে এই নতুন প্রজাতির করোনাভাইরাস। কারণ সেখানে ইতিমধ্যেই ৮৩ শতাংশের শরীরে হানা দিয়েছে ডেল্টা! একইসঙ্গে আমেরিকায় দৈনিক মৃত্যুর বেড়ে গিয়েছে ৪৮ শতাংশ।

জানা গিয়েছে, যে ৮৩ শতাংশ মানুষের শরীরে ডেল্টা প্রজাতি হানা দিয়েছে তাদের মধ্যে জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ শতাংশ। সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন জানাচ্ছে, মূলত টিকাকরণ যে অঞ্চলে কম হয়েছে সেখানে দ্রুত সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। আমেরিকার দুই-তৃতীয়াংশ কাউন্টিতে টিকা প্রাপ্তের সংখ্যা ৪০ শতাংশের কম, সেখানেই বেশি মাত্রায় সংক্রমিত হওয়ার ঘটনা সামনে এসেছে। ভারত থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের এই নতুন রূপ ইতিমধ্যেই ভয় ধরিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থারও। তারা ইতিমধ্যেই এই প্রজাতিকে নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছে যে, ডেল্টা প্রজাতি পৃথিবীর প্রায় ১০০ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। মনে করা হচ্ছে এটাই করোনাভাইরাস প্রজাতির সবথেকে সংক্রামক রূপ। 

আরও পড়ুন- ‘দুয়ারে সরকার’ ১৬ অগাস্ট থেকে, 'লক্ষ্মীর ভাণ্ডার' নিয়েও ঘোষণা মমতার

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছিল, এর সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষমতা অন্যান্য প্রজাতির থেকে অনেক বেশি। তাই অবশ্য ভাবে এই প্রজাতি নিয়ে চিন্তা থেকেই যাচ্ছে তাদের। সব থেকে বড় উদ্বেগের ব্যাপার হল, বেশিরভাগ দেশে এই প্রজাতি আটকানোর প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো নেই। যার ফলে আগামী দিনে আরো ভয়ঙ্কর রূপ নিতে পারে এই ডেল্টা প্রজাতি বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাদের তরফ থেকে আরও জানানো হচ্ছে, স্যানিটাইজার এবং মাস্ক ব্যবহার করা আগের থেকেও বেশি বাধ্যতামূলক করতে হবে এই প্রজাতির সংক্রমণ আটকানোর জন্য। এর পাশাপাশি টিকাকরণের জোর দিতে হবে বলে দাবি করছে তারা।

From around the web

Education

Headlines