×

এবার চাঁদের মাটিতে মিলবে 4G পরিষেবা! সৌজন্যে নোকিয়া

 

নিউ ইয়র্ক:  এবার চাঁদের মাটিতে মিলবে 4G পরিষেবা৷ ভবিষ্যতে যদি কখনও পৌঁছে যান চাঁদের দুনিয়ায়, তাহলে চিন্তা নেই৷ সেখান থেকেই চটপট টুইট করে ফেলতে পারবেন নিজের ছবি৷ অবাক লাগলেও, মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার হাত ধরে এই অসম্ভবকেই সম্ভব করতে চলেছে নোকিয়া৷ চাঁদে 4G LTE পরিষেবা পৌঁছে দিতে নাসার সঙ্গে কোমড় বেঁধে কাজ করবে নোকিয়ার  অধীনস্থ বেল ল্যাবস৷ 

আরও পড়ুন- ভারত, রাশিয়া ও চিনই বাড়াচ্ছে বায়ুদূষণ! তোপ মার্কিন প্রেসিডেন্টের


এর আগেও চাঁদে হাই স্পিড ইন্টারনেট পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছিল নোকিয়া৷ এই প্রকল্পের জন্য ৩৭০ মিলিয়ন ডলার খরচ করবে নাসা৷ এর মধ্যে নোকিয়াকে দেবে ১৪.১ মিলিয়ন ডলার৷ নাসা ও বেল ল্যাবস উভয়ই টুইট করে এই পদক্ষেপের কথা জানিয়েছে৷ কিন্তু কেন এত টাকা খরচ করছে নাসা? বেল ল্যাবসের একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চাঁদের মাটিকে মানুষের বসবাসযোগ্য করে তুলতে এই উদ্যোগ অনেকটাই সাহায্য করবে৷ প্রথমে 4G পরিষেবা চালু করা হবে৷ পরে আনা হবে 5G ৷ নাসার স্পেস টেকনোলজি মিশনের দায়িত্বে থাকা জিম রয়টার জানিয়েছেন, 4G পরিষেবা চালু হলে মহাকাশচারীদের মধ্যে যোগাযোগ রাখাও আরও সহজ হয়ে যাবে৷ 


তবে এই উদ্যোগ এটাই প্রথম নয়৷ ২০১৮ সালে চাঁদে 4G পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য যৌথভাবে উদ্যোগ নিয়েছিল ভোডাফোন, নোকিয়া এবং জার্মান গাড়ি নির্মাণকারী সংস্থা অডি। প্রসঙ্গত, চাঁদে উপনিবেশ গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে আমেরিকা ও রাশিয়ার। একইভাবে চাঁদের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে মঙ্গলের উদ্দেশেও পাড়ি দিতেও চলেছে মানুষ। আগামী ২০ বছরের মধ্যেই মানুষ লালগ্রহের বুকে পৌঁছে যাবে বলেও দাবি করেছেন মহাকাশচারীরা। 

আরও পড়ুন- জন্মেই চিকিৎসকের মাস্ক খুলল সদ্যোজাত, ভাইরাল ভিডিয়ো মন ছুঁয়ে গেল বিশ্ববাসীর


গত মাসে নাসা আর্টেমিস এক্সপ্লোরেশন প্রোগ্রাম সম্পর্কে বিশদে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করেছিল নাসা। সেখানে বলা হয়, ২০২৪ সালের মধ্যেই পরবর্তী চন্দ্রাভিযান সম্পন্ন করবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র৷ প্রথম কোনও মহিলা মহাকাশচারী পা রাখবেন চাঁদের মাটিতে। নিঃসন্দেহে যা হতে চলেছে ২০২৪ সালের চন্দ্রাভিযানের অন্যতম এক বৈশিষ্ট্য।


তবে এখানেই শেষ নয়। আরও একটি মজাদার ঘটনা ঘটেছে৷ মহাকাশের ইতিহাসে যা আগে কখনও ঘটেনি। আমেরিকার এক প্রসাধনী সংস্থা- এস্টি লডার নাসা-র মহাকাশযানে করে মহাকাশে পাঠিয়ে দিয়েছে তাঁদের বিউটি প্রোডাক্ট৷  সেই প্রোডাক্ট ব্যবহার করে মহাকাশচারীরাই তাঁদের অভিজ্ঞতা সরাসরি ক্যামেরাবন্দি করবেন বলে জানা গিয়েছে৷  

From around the web

Education

Headlines