×

এমবাপেকে ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করেছিলেন বান্ধবী রোজ? জোর চর্চা অন্তর্জালে

 
এমবাপে

কলকাতা: কাতার বিশ্বকাপে নিজেকে উড়ার করেও তিনি ছিলেন ট্র্যাজিক হিরো৷ লিয়োনেল মেসির ঔজ্জল্যে ফিকে হয়ে যায় তাঁর জৌলুস৷ তবে ফরাসি শিবিরে তিনিই একমাত্র ফুটবলার যিনি একাই রুখে দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার দুর্বার গতিকে৷ ফুটবল মাঠের এই তারকা ফ্রান্সের একজন ‘এলিজেবল ব্যাচেলর’ও বটে৷ কানাঘুষো, তাঁর চেয়ে বয়সে ৪ বছরের বড় মডেল বছর ২৭-এর রোজ বার্ট্রামের সঙ্গে ডেটিং করছেন তিনি। বছরের শুরুতেই একজন ট্রান্স মডেলের সঙ্গে ইয়টে ভ্রমণ করতে দেখা গিয়েছিল এমবাপেকে৷ তার সঙ্গে ব্রেকআপের পরেই তিনি রোজের সঙ্গে ডেটিং শুরু করেছেন বলেই খবর৷ 


সবুজ ঘাসের উপর দিয়ে তিনি বল পায়ে ছুটে যান এক ক্ষীপ্র বাঘের মতো, তেমনই মাঠের বাইরেও তাঁর কম দাপট নয়৷ কাতার বিশ্বকাপেও স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন তাঁর বান্ধবী রোজ বারট্রাম৷ প্রায় প্রতিদিনই তিনি শিরোনাম কাড়লেও এ বিষয়ে এখনও মুখ খোলেননি তাঁদের কেউই৷ তবে রোজ বারট্রাম যে এমবাপের বর্তমান বান্ধবী তা প্রায় নিশ্চিত৷ 


বিভিন্ন সূত্রের জানা গিয়েছে, ২০২২-এর গোল্ডেন বুটের মালিক এমবাপের সঙ্গে বিগত কয়েকবছর ধরেই ডেটিং করছেন রোজ। প্যারিসের রাস্তায় তাঁদের একসঙ্গে দেখাও গিয়েছে। রোজ বারট্রাম পেশায় মডেল৷ মাত্র ১৩ বছর বয়স থেকেই তিনি মডেলিং করছেন৷ পেশার সূত্রেই তিনি প্যারিসে থাকেন৷ শোনা যায়, প্যারিসেই একটি ফ্যাশন অনুষ্ঠানেই এমবাপের সঙ্গে আলাপ হয়েছিল তাঁর। PSG-তে খেলার সুবাদে কিলিয়ান এমবাপেরও বর্তমান ঠিকানা প্যারিস৷ 


এমবাপে যখন বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তখন তাঁর কথিত বান্ধবী রোজ বার্টরাম কাতারেই একটি ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়েছিলেন। আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের ফাইনাল ম্যাচের দিন ওই ফ্যাশন শোতে অংশ নিয়েছিলেন এমবাপের ২৮ বছরের বান্ধবী রোজ। এই লাস্যময়ী মডেলের ইনস্টাগ্রামে দশ লক্ষেরও বেশি ফলোয়ার্স রয়েছে৷ 


এর আগে বেশ কয়েক মাস ৩২ বছরের মডেল ইনেস রাউ-এর সঙ্গে ডেটিং করেন এমবাপে। কিন্তু সেই ট্রান্সজেন্ডার মডেলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেন ফরাসি অধিনায়ক৷ এমনকি ইনস্টাগ্রামে তাঁকে অনুসরণ করাও বন্ধ করে দেন৷ এর পরেই তাঁর জীবনে আসেন রোজ৷ শোনা যায়, রোজ নাকি এমবাপেকে ফাঁসিয়ে তাঁর সন্তানের জন্ম দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন৷ এর পরেই ইনস্টাগ্রামে রোজ লেখেন, ‘‘গত কয়েক সপ্তাহে, আমার সম্পর্কে মিথ্যা প্রচার করা হয়েছে৷ যা আমার, আমার পরিবার এবং আমার চারপাশের লোকদের মারাত্মক ক্ষতি করছে। ২০২৩ আমার কাছে ঘৃণা এবং সাইবার আক্রমণ দিয়ে শুরু হল৷"

From around the web

Education

Headlines