×

ইতিহাস সৃষ্টি, প্রথমবারের জন্য থমাস কাপ জয় ভারতের  

 
thomas cup

থমাস কাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে ইতিহাস সৃষ্টি করল ভারত। প্রথমবার ভারতীয় দল সোনার পদক জয় করল। এই টুর্নামেন্টে ভারত মালয়েশিয়া, ডেনমার্কের মতো দলকে পরাজিত করে আগেই ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিল। এবার ইন্দোনেশিয়াকে পরাজিত করে ভারতীয় দল সোনার পদক জয় করে। 

ফাইনলালে ইন্দোনেশিয়ার বিরুদ্ধে ভারত ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায়। প্রথমে ম্যাচে লক্ষ্য সেন অ্যান্থনি সিনিসুকাকে ৮-২১, ২১-১৭ এবং ২১-১৬ ব্যবধানে হারান। দ্বিতীয় ম্যাচে ডাবলসে সাত্ত্বিক সাইরাজ রাঙ্কিরেড্ডি এবং চিরাগ শেঠির জুটি ১৮-২১, ২৩-২১ এবং ২১-১৯ ব্যবধানে জয় হাসিল করে। তৃতীয় ম্যাচের সিঙ্গলসে কিদাম্বি শ্রীকান্ত জোনাথন ক্রিস্টিকে ২১-১৫ এবং ২৩-২১ ব্যবধানে পরাস্ত করেন বলে জানা গিয়েছে। ফাইনালে পৌঁছানোর পর ইতিহাস তৈরি করার জন্য ভারতীয় দলের কাছে একটা সুযোগ হাতছানি দেয়। সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়ে থমাস কাপ জয় করে ভারতীয় ব্যাডমিন্টন দল। 

প্রথম থেকেই ফেভারিট দল হিসেবে ছিল ইন্দোনেশিয়া। ফাইনালে ওঠার আগে অবধি ব্যাডমিন্টন দলটি একটি ম্যাচেও হারেনি। থমাস কাপ জয় করার প্রবল সম্ভাবনা ছিল ইন্দোনেশিয়ার। অন্যদিকে গ্রুপ লিগে ভারতকে তাইপে চাইনিজের কাছে হারতে হয়েছিল। সেই সম্ভাবনাকে কার্যত ধুলোয় মিশিয়ে দিয়ে ভারতীয় দলের হাতে উঠল থমাস কাপ। ফাইনালে প্রথম থেকেই পিছিয়ে পড়তে থাকে ইন্দোনেশিয়ার ব্যাডমিন্টন দলটি। 
ফাইনালে প্রথমে ভারতের হয়ে খেলতে নামেন লক্ষ্য সেন। তাঁর বিরুদ্ধে ইন্দোনেশিয়ার হয়ে নামে অ্যান্টনি সিনিসুকা জিনটিং। জিনটিং বিশ্বের চার নম্বর ব্যাডমিন্টন তারকা। ২৮-৮ ব্যাবধানে প্রথম গেমটি জিতে নেন জিনটিং। যদিও তারপরে লক্ষ্য সেন খেলায় ফিরে আসেন। ২১-১৭ ব্যবধানে দ্বিতীয় গেমে সমতা ফেরান। ২১-১৬ পয়েন্টে তৃতীয় গেম জিতে যান। যার জেরে ভারত প্রথম ম্যাচে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায়।  

From around the web

Education

Headlines