Aajbikel

এরপরেও বলতে হবে 'সেটিং' নেই! কংগ্রেসকে মমতার নজিরবিহীন আক্রমণে প্রশ্ন বিরোধীদের

 | 
মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি: কেন্দ্রীয় বঞ্চনার বিরুদ্ধে রেড রোডের ধর্না মঞ্চ থেকে কংগ্রেসকে নজিরবিহীন আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা শুক্রবার নাম না করে রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে বলেছেন,"সামনে ভোট, বসন্তের কোকিল চলে এসেছে। এখন নতুন একটা ফ্যাশন হয়েছে। শুধু ফটোশুট হচ্ছে। জীবনে কখনও চায়ের দোকানে বসেনি। শিশুকে আদর করেনি, শিশু কি জিনিস জানে না। জীবনে কখনও বিড়ি বাঁধেনি। বিড়ির বদলে হয়ত অন্য কিছু খায়। তারা আজ ফটোশুট করছে। কংগ্রেস সারা দেশে ৪০টি আসন পাবে কিনা জানি না। আগে নিজের জায়গা দেখাও। পারলে বারাণসীতে গিয়ে বিজেপিকে হারাও। রাজস্থানে তোমরা জেতা জায়গায় হেরেছ। মধ্যপ্রদেশে গিয়ে বিজেপিকে হারাও। তুমি বাংলা না‌ বেছে ইউপিতে গেলে না কেন?'' সেই সঙ্গে মমতার অভিযোগ বাংলায় কংগ্রেস ও সিপিএম মিলেমিশে মুসলিম ভোট নেওয়ার চেষ্টা করছে।

'ইন্ডিয়া' জোটের অন্যতম শরিক তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লোকসভা নির্বাচনের আগেই বলতে শুরু করে দিয়েছেন কংগ্রেস খারাপ ফল করবে। তাতে ব্যাপারটি  এটাই দাঁড়ায় যে, বিজেপি ভাল ফল করবে এমনটাই তিনি বোঝাতে চাইছেন। যে কোনও নির্বাচন বা খেলার ময়দান, কোনও দলই হারতে চায় না। সকলেই জেতার লক্ষ্যে মাঠে নামেন। আগে থেকেই যদি হারার কথা বলা হয় তাহলে মনোবল ভেঙে চুরমার হয়ে যায়। তখন কি আর লড়াই করার কারও ক্ষমতা থাকে? 'ইন্ডিয়া' জোটের সবচেয়ে বড় শরিক, সবচেয়ে শক্তিশালী শরিক কংগ্রেস। তাদের ধারে কাছে অন্য কেউ নেই। দেশে দুশোর বেশি আসনে কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে সরাসরি লড়াই হবে। সেই জায়গায় কংগ্রেস খারাপ ফল করবে এখন থেকেই যদি এমন আশঙ্কার কথা বলেন খোদ মমতা, তাহলে বিরোধীদের মনোবল তো ধাক্কা খাবেই। উল্টোদিকে বিজেপি আরও মানসিকভাবে চাঙ্গা হবে।

স্বাভাবিকভাবেই বাম ও কংগ্রেসের অভিযোগ, মমতা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে বিজেপিকে চাঙ্গা করার লক্ষ্যেই এমন কথা বলছেন। নেপথ্যে সেই 'সেটিং' অঙ্ক কাজ করছে বলেই বাম-কংগ্রেসের অভিযোগ। ঘটনা হল বহুদিন ধরেই বাম-কংগ্রেসের অভিযোগ রাজ্যে প্রভাবশালীদের বাঁচানোর জন্য তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে 'সেটিং' রয়েছে। তাই লোকসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল নেত্রী কংগ্রেস ও বামকে এভাবে নজিরবিহীন আক্রমণ করছেন বলেই তাদের অভিযোগ। উল্লেখ্য মালদা ও মুর্শিদাবাদে রাহুল গান্ধীর মিছিলে জনপ্লাবন দেখা দিয়েছে। সেই বিপুল ভিড়ে সংখ্যালঘু মানুষের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। তবে কি সংখ্যালঘু ভোট পাশ থেকে সরে যাওয়ার ভয় থেকেই শুক্রবার মমতা কংগ্রেসকে এভাবে নজিরবিহীন আক্রমণ করেছেন? এমন প্রশ্ন করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। সবমিলিয়ে তৃণমূলকে বিঁধে 'সেটিং তত্ত্ব' নতুন করে তুলে ধরছে বাম ও কংগ্রেস।
 

Around The Web

Trending News

You May like