Aajbikel

বিহার ভোটের আগেই ছন্নছাড়া নীতীশ-সংসার! জোট ভেঙে একা লড়বে এলজেপি

 | 
বিহার ভোটের আগেই ছন্নছাড়া নীতীশ-সংসার! জোট ভেঙে একা লড়বে এলজেপি

পাটনা:  আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষা৷ তারপর করোনা আবহে ভোটের লাইনে দাঁড়াবে বিহারের জনতা৷ চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি৷ বিহার ভোটের উত্তাপ বাড়তেই বড়সড় ধাক্কা খেল এনডিএ শিবির৷ ৩ দফায় বিহার নির্বাচনে এবার একাই লড়তে চলেছে লোক জনশক্তি পার্টি বা এলজেপি৷ আজ রবিবার দলের সংসদীয় বোর্ডের বৈঠকে এলকা চলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷

এলজেপির তরফে আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, বিহারেও মণিপুর মডেল অনুসরণ করা হবে৷ অর্থাৎ ভোটে আলাদা লড়াই হবে৷ ২০১৭ সালের মণিপুর নির্বাচনে ১১টি আসনে লড়েছিল চিরাগ পাসোয়ানের দল এলজেপি৷ পরে যদিও বিজেপি সরকারের ঘরে আশ্রয় দেয় এলজেপি৷ তার আগে ২০১৪ সালের জম্মু ও কাশ্মীর ও ২০১৯ সালের ঝাড়খণ্ড নির্বাচনে একা লড়েছিল কেন্দ্রের এনডিএ জোটের শরিক এলজেপি৷ এবার বিহার ভোটেও একই ফর্মুলা কার্যকর হতে চলেছে৷

এনডিএ জোটে থাকলেও বিহার ভোটে ‘বন্ধুত্বপূর্ণ’ লড়াইয়ে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এলজেপি৷ পাছে, আসন ভাগাভাগি নিয়ে কোনও সমস্যা তৈরি না হয়৷ এলজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়েছিল, নীতীশ কুমারের জেডিইউয়ের বিরুদ্ধে প্রার্থী দেবে তারা৷ তবে, বিজেপি যেখানে প্রার্থী দেবে, সেখানে তাঁরা গোঁজ প্রার্থী দাঁড়া করাবেন না৷ অর্থাৎ বিজেপিকে ওয়াকওভার দিয়ে জেডিইউয়ের বিরুদ্ধে লড়াই হবে বলে জানিয়েছে এলজেপি৷ তাতে এই সিদ্ধান্ত বিরোধীদের পক্ষে খুব একটা স্বস্তির না হলেও নীতীশ কুমারের রাতের ঘুম ছুটিয়ে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট বলে মনে করছে পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ৷ চিরাপ পাসোয়ানের দলের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বিজেপির সঙ্গে তাঁদের কোনও সমস্যা নেই৷ যাবতীয় সমস্যার মূলে রয়েছেন নীতীশ৷ ফলে, ভোটে হবে নীতীশের বিরুদ্ধে৷  নীতীশের নেতৃত্বে তাঁরা লড়াই করবে না বলেও সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

Around The Web

Trending News

You May like