Aajbikel

হিন্দি বলয়ে গেরুয়া ঝড়, 'ইন্ডিয়া' জোটে দাদাগিরি শেষ কংগ্রেসের!

 | 
বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি:   চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশ শুরু হতেই দেখা যাচ্ছে হিন্দি বলয়ের তিনটি রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি। রাজস্থান ও ছত্তিশগড়  হাতছাড়া হতে চলেছে কংগ্রেসের, সেখানে ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি। তবে মধ্যপ্রদেশ ধরে রাখতে পারছে বিজেপি।কংগ্রেসের একমাত্র সান্ত্বনা দক্ষিণ ভারতের তেলেঙ্গানা। সেখানে তারা ক্ষমতায় আসতে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে বিরোধীদের 'ইন্ডিয়া' জোটে কংগ্রেসের যে দাদাগিরি কমতে বাধ্য সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই কংগ্রেস সম্পর্কে বিভিন্ন আঞ্চলিক দলের ক্ষোভ বাড়ছে। এখনও পর্যন্ত আসন রফা নিয়ে বৈঠকে বসতে পারেনি না কেউ। কারণ একটাই, কংগ্রেস এখনই আসন রফায় আগ্রহী নয়। পাঁচ রাজ্যের ফলাফল দেখে তবেই তারা সেই বৈঠকে বসবে, এটা বহু আগে থেকেই কংগ্রেস ঠিক করে রেখেছিল। উদ্দেশ্য একটাই, আঞ্চলিক দলগুলির উপর চাপ বাড়ানো। কোনও অবস্থাতেই বিভিন্ন আঞ্চলিক দলকে কংগ্রেস বেশি আসন ছাড়তে রাজি নয়, সেই মনোভাব বহুদিন ধরেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। কিন্তু চার রাজ্যের ভোটের ফলাফল কংগ্রেসকে যে বড় ধাক্কা দিল সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ কংগ্রেস নিশ্চিত ছিল যে তারা মধ্যপ্রদেশে ক্ষমতায় ফিরবে। সেই জায়গায় গতবারের থেকেও খারাপ ফল হয়েছে তাদের। রাজস্থানে পাঁচ বছর অন্তর সরকার বদল হয়। সেই যুক্তিতে কংগ্রেস হেরে গেলে ততটা হয়ত মুখ পোড়ার কথা নয়। কিন্তু ছত্তিশগড়েও তারা হারতে চলেছে। অর্থাৎ হিন্দি বলয়ে জোর ধাক্কা খেল শতাব্দী প্রাচীন দলটি।

লোকসভা নির্বাচন কার্যত দরজায় কড়া নাড়ছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত 'ইন্ডিয়া' জোটের শরিকরা আসন রফা নিয়ে বৈঠকে বসতে পারেনি। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহু আগেই বলেছিলেন অক্টোবরের মধ্যেই আসন রফা নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া যেন হয়ে যায়। কিন্তু পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনের ফলাফল কংগ্রেসের পক্ষে ভাল হলে আসন রফা নিয়ে তারা অনেক বেশি দর কষাকষি করতে পারত অন্যান্য দলগুলির সঙ্গে, এই ভাবনা থেকেই কংগ্রেস ইচ্ছা করে দেরি করেছে আসন রফা করতে। মিজোরামের ফল রবিবার প্রকাশিত হয়নি। সেখানে সোমবার ফল প্রকাশ হবে। তবে সেখানেও কংগ্রেসের ভরাডুবি হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

ছত্তিশগড়, রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশ, হিন্দি বলয়ের এই তিনটি রাজ্যেই প্রচুর আসনে প্রার্থী দিয়েছে আম আদমি পার্টি। একই ভাবে মধ্যপ্রদেশে বেশ কিছু আসনে প্রার্থী দিয়েছে সমাজবাদী পার্টি। শুধুমাত্র মধ্যপ্রদেশেই প্রায় নব্বইটি আসনে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে প্রার্থী রয়েছে 'ইন্ডিয়া' জোট শরিক দলের। গত বিধানসভা নির্বাচনে মধ্যপ্রদেশে প্রায় দশটি কেন্দ্রে অত্যন্ত কম ভোটের ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল কংগ্রেস। তাই এবারেও সমাজবাদী পার্টি ও আম আদমি পার্টি সেখানে প্রার্থী দেওয়ায় এবার যথেষ্ট ভোট কাটাকাটি হয়েছে। একই কথা প্রযোজ্য রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ের ক্ষেত্রেও। অর্থাৎ কংগ্রেস ভাল করেই বুঝতে পারছে হিন্দি বলয়ের এই তিনটি রাজ্যে তারা যদি আম আদমি পার্টি, সমাজবাদী পার্টিকে কিছু কিছু  করে আসন ছাড়ত তাহলে তাদের ফল নিশ্চিত ভাবে ভাল হতো। বলাবাহুল্য এই ভুলের দায় কংগ্রেসকেই নিতে হবে। এই পরিস্থিতিতে 'ইন্ডিয়া' জোটের পরবর্তী বৈঠকে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সবাই যে সুর চড়াবে তা বোঝাই যাচ্ছে।

Around The Web

Trending News

You May like