Aajbikel

বিজেপি একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হবে! সত্যিটাই বলে ফেললেন শশী থারুর?

 | 
থারুর

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিজেপির কাছে এ যেন মেঘ না চাইতেই জল! লোকসভা নির্বাচনে তারা একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হবে এই দাবি বহুদিন ধরেই করছেন সর্বস্তরের বিজেপি নেতৃত্ব। শুধু একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হওয়াই নয়, বিজেপি এবার চারশো আসনের টার্গেট নিয়ে ঝাঁপিয়েছে বহুদিন আগে থেকেই। এই পরিস্থিতিতে কংগ্রেসের অত্যন্ত জনপ্রিয় সাংসদ শশী থারুর বলে ফেললেন বিজেপি লোকসভা নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হবে। তবে কি 'সত্যিটা' বলেই ফেললেন তিনি? সেই জল্পনা শুরু হয়েছে থারুরের এমন বক্তব্যের পর থেকেই।

শনিবার কোঝিকোড়ে 'কেরল লিটারেচার ফেস্টিভ্যাল' অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেওয়ার সময় এমন মন্তব্য করেছেন থারুর। যার যথেষ্ট রাজনৈতিক তাৎপর্য রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এমন একটি সময় থারুর এমন মন্তব্য করেছেন যখন বিরোধী 'ইন্ডিয়া' জোটের শরিক দলগুলি নিজেদের মধ্যে আসন সমঝোতার রফাসূত্র নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে। রাজনীতির কারবারিদের একাংশ মনে করেন, গত বার নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন বিজেপি তথা এনডিএ যেভাবে বিপুল জয় পেয়েছিল এবারেও সেটাই হতে চলেছে বলে থারুর ইঙ্গিত দিয়েছেন। আর কেরলে কোনও জোট হচ্ছে না। এখানে কংগ্রেস-সিপিএমের সরাসরি লড়াই। তৃতীয় পক্ষ হিসেবে বিজেপি অবশ্য রয়েছে। গোটা প্রেক্ষাপটের বিশ্লেষণ করতে গিয়ে থারুর বলেছেন,''বিজেপি একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে উঠে আসবে বলে মনে হচ্ছে। তবে আমাদের লক্ষ্য হওয়া উচিত বিজেপির আসন সংখ্যা এতটাই কমিয়ে আনা, যাতে তার শরিকরা তাদের সমর্থন না করে। তারা পরিবর্তে যাতে বিরোধীদের সমর্থন করতে পারে তার জন্য আমাদের সবাইকে যৌথভাবে চেষ্টা করতে হবে। কেরলে আসন সমঝোতা অসম্ভব। তবে বিভিন্ন রাজ্যে রাজনৈতিক পরিস্থিতি অনুযায়ী আসন সমঝোতা চূড়ান্ত করতে হবে।" সেই সূত্রে সমস্ত বিরোধী দলকে একসঙ্গে হাতে হাত মিলিয়ে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন তিনি।

ঘটনা হল বিজেপি পরপর দুটি লোকসভা নির্বাচনে একাই ম্যাজিক ফিগার (২৭২) পেরিয়ে গিয়েছে। আর ২০১৯-এ বিজেপি একাই তিনশোর গণ্ডি পেরিয়ে গিয়েছিল। এবার বিজেপি চারশো আসনকে টার্গেট করে লড়াইয়ে নেমেছে। বহুদিন ধরেই সেই প্রস্তুতি পুরোদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। রাম মন্দির উদ্বোধনের পর সেই লক্ষ্যে দলের প্রচার যে আরও তুঙ্গে উঠবে, সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই বিজেপি যখন হট ফেভারিট হয়ে হ্যাটট্রিক করে তৃতীয় বার কেন্দ্রে আসতে চলেছে বলে রাজনৈতিক মহলের পাশাপাশি অধিকাংশ 'ওপিনিয়ন পোল' জানাচ্ছে, ঠিক সেই সময় কেরলের কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর একই সুরে সে কথাই বললেন। যদিও বিষয়টি নিয়ে কংগ্রেসের ব্যাখ্যা, এটা থারুরের ব্যক্তিগত মতামত। লোকসভায় কংগ্রেস তথা  বিরোধীরা ক্ষমতায় আসবে বলে তাদের দাবি। তবে কংগ্রেস যে দাবিই করুক না কেন, দলের অন্যতম উজ্জ্বল ভাবমূর্তির নেতা শশী থারুর যে কথা বলেছেন তাতে যে গোটা বিরোধী শিবিরের অস্বস্তি অনেকটাই বেড়ে গেল তা স্পষ্ট। কিন্তু প্রশ্ন হল এমন কথা কেন বললেন শশী থারুর? তবে কি সবাই বুঝতে পারছেন লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল কী হবে? থারুর যথেষ্ট সাহসের সঙ্গে যে কথা বলেছেন, কংগ্রেসের সবাই মনে মনে সেটাই কি ধরে নিয়েছেন? সেই সঙ্গে প্রশ্ন উঠছে, এই বক্তব্যের জন্য কংগ্রেস হাইকমান্ড কি থারুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন? নাকি তাতে বিতর্ক আরও বেড়ে যেতে পারে বলে চুপচাপ হয়ে যাবেন সবাই? তবে যাই হোক না কেন, বিষয়টি নিয়ে চর্চা কিন্তু থেমে থাকবে না।

Around The Web

Trending News

You May like