Aajbikel

সমীক্ষায় বাংলায় বিজেপি ১৮! রামমন্দির উদ্বোধনের পর আরও বড় চমক?

 | 
বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি: চব্বিশের মেগা লোকসভা নির্বাচনে কি হতে পারে তা নিয়ে যে সমীক্ষা চালিয়েছিল এবিপি-সি ভোটার, সেই 'ফলাফল' সামনে এসেছে। সমীক্ষা কখনও মেলে, আবার বহু ক্ষেত্রেই মেলে না। তবু এই ধরনের সমীক্ষা নিয়ে  যথেষ্ট আগ্রহ থাকে রাজনৈতিক মহলের। তাই লোকসভা নির্বাচনের আগে যে ওপিনিয়ন পোল সামনে এসেছে তাতে উচ্ছ্বসিত রাজ্য ও কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতৃত্ব। সেখানে বলা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ১৬ থেকে ১৮টি আসন পেতে পারে। অন্যদিকে ২৩ থেকে ২৫টি আসন পেতে পারে তৃণমূল। আর বাম-কংগ্রেস যদি জোট বেঁধে লড়ে তবে তারা পেতে পারে ০-২টি আসন।

ডিসেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে এই সমীক্ষা করা হয়েছিল। তার ভিত্তিতেই এই 'ফলাফল' সামনে এসেছে। আগামী দিনে আরও সমীক্ষা হবে। গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি পশ্চিমবঙ্গ থেকে ১৮টি আসনে জয়লাভ করেছিল। এবারের সমীক্ষা বলছে বিজেপি সেই ফলাফল ধরে রাখতে পারবে। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের একাংশ মনে করছে জানুয়ারি মাসে রাম মন্দির উদ্বোধনের পর দেশজুড়ে যে হিন্দুত্বের ঢেউ উঠবে তার আঁচ অবশ্যই এসে পড়বে পশ্চিমবঙ্গেও। সেক্ষেত্রে বিজেপির পালে আরও হাওয়া লাগলে তাদের আসন সংখ্যা গতবারের চেয়ে বাড়তে পারে বলে গেরুয়া শিবির দাবি করছে। এমনিতেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্য বিজেপিকে ৩৫টি আসনের লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছেন। তাই ভোট সমীক্ষা এখনই যে সংখ্যা বলছে তাতে বিজেপি যে উল্লসিত হবে এটাই স্বাভাবিক।

ঘটনা হল একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূল অসম্ভব ভাল ফল করেছিল। সেই ফলের নিরিখে দেখা যাচ্ছে রাজ্যের অধিকাংশ লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল এগিয়ে রয়েছে বিজেপি বা বাম-কংগ্রেসের থেকে। সেই জায়গা থেকে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ৩৫টির বেশি আসন পাওয়া উচিত বলে দলীয় নেতৃত্ব মনে করেন। কিন্তু সমীক্ষা সে কথা বলছে না। সেই সঙ্গে সমীক্ষা বলছে বিধানসভা নির্বাচনের তুলনায় তৃণমূলের ভোট শতাংশ কমবে। যে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ বেড়েছে শাসক দলে। রাজ্য জুড়ে বিভিন্ন সামাজিক প্রকল্পের মাধ্যমে মানুষকে ঢালাও অর্থ দিচ্ছ তৃণমূল সরকার। সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ভোটের সিংহভাগ তৃণমূল দীর্ঘদিন ধরেই পেয়ে আসছে। বিগত কয়েকটি উপনির্বাচনে বিরোধীতা দাঁত ফোটাতে পারেনি। তাই হঠাৎ কি এমন হল যেখানে বিজেপি এবারেও পশ্চিমবঙ্গ থেকে ভাল ফল করবে? এই প্রশ্ন স্বাভাবিকভাবে উঠছে। যদিও তা নিয়ে মাথা ঘামাতে নারাজ গেরুয়া শিবির। তাদের দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন তার কাছাকাছি এবার পৌঁছে যাবে রাজ্য বিজেপি। আর যেটা সম্ভব হবে রাম মন্দির উদ্বোধনের জন্যই। তাই রাম মন্দির উদ্বোধনের পর আরও বড় চমক দেখা যাবে বলে রাজ্য বিজেপির দাবি। যদিও সমীক্ষা কখনও ভোটের ফলাফল নয়। তাই নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত কারা বাজিমাত করে সেটা সময়ই বলবে।

Follow the Aaj Bikel News channel on WhatsApp:  https://whatsapp.com/channel/0029VaHOJdSHVvTYa4yzXf1O
 

Around The Web

Trending News

You May like