Aajbikel

ভোটের গরজ, ভোটের আশা, আ মরি বাংলা ভাষা! উধাও তৃণমূল-বিজেপির বাঙালিয়ানা!

 | 
ভোটের গরজ, ভোটের আশা, আ মরি বাংলা ভাষা! উধাও তৃণমূল-বিজেপির বাঙালিয়ানা!

 
বিবস্বান বসু:  নির্বাচনী রাজনীতির দড়ি টানাটানি বলছে, নবান্ন দখলের আসন্ন যুদ্ধে মেরুকরণের পাশাপাশি নির্ণায়ক ভূমিকা নিতে চলেছে বাংলা ও বাঙালির সত্ত্বা৷ হেভিওয়েট যুযুধান দুই পক্ষের একপক্ষ যখন অন্যের গায়ে ‘বহিরাগত’ তকমা সেঁটে দিতে আওয়াজ তুলছে ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’, প্রতিপক্ষ শিবিরের অস্ত্র তখন ‘সোনার বাংলা’ গড়ার প্রতিশ্রুতি৷ কিন্তু সাম্প্রতিক রাজনীতির এই দ্বৈরথে নিদারুণ পরিহাস হল, দুই পক্ষেরই প্রার্থীতালিকায় বাংলা ভাষার মর্মন্তুদ অনুপস্থিতি৷ স্বভাবতই প্রশ্ন উঠছে, দুই দলই যখন গদি দখলের লড়াইয়ে বাঙালিয়ানাকে পুঁজি করছে, সেখানে কি ভোট-যোদ্ধাদের তালিকায় বাংলা হরফকে ঠাঁই দেওয়া যেত না? নাকি বাঙালি-অস্মিতা শুধুই জনগণেশের আবেগ উসকে দেওয়ার অস্ত্র, নেহাতই ভোটের গরজ, ভালোবাসা-আন্তরিকতা গৌণ?

গত লোকসভা নির্বাচনের প্রচারেই বিজেপি স্লোগান তুলেছিল, ‘উনিশে হাফ, একুশে সাফ’৷ দিল্লির সেই দৌড়ে নজরকাড়া সাফল্যের পরই বাংলার মসনদের লক্ষ্যে মরিয়া হয়ে ওঠে রক্তের স্বাদ পেয়ে যাওয়া পদ্ম-ব্রিগেড৷ আর এখন ভোট যখন দোরগোড়ায়, তখন তো রীতিমতো ঝড় তুলে দিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহ-জেপি নাড্ডারা৷ নবান্ন দখলকে চাঁদমারি করে যবে থেকে আসরে নেমেছে বিজেপি, সেদিন থেকেই তাদের আস্তিনের তাস ‘সোনার বাংলা’ গড়ার হাতছানি, বাংলার সংস্কৃতি ফিরিয়ে আনার ডাক৷

অবাঙালির দলের ছাপ মুছতে (তার ওপর রয়েছে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার অভিযোগের কাঁটা) রবীন্দ্রনাথ থেকে বঙ্কিমচন্দ্র- বাংলার মনীষীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর ঢলও কম নয়৷ প্রান্তিক মানুষের মন ছুঁতে মোদির ব্রিগেড ভাষণে আবার উঠে এসেছে বাংলা ভাষায় ডাক্তারি-ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার সুযোগ করে দেওয়ার কথা৷ সেই বিজেপিই যখন বঙ্গজয়ের লক্ষ্যে গোটাদুয়েক আসন বাদ দিয়ে প্রথম দু’দফার ভোটের প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করেছে, তখন তাতে ব্রাত্য বাংলা ভাষা৷ সর্বভারতীয় দল হিসেবে হিন্দি ভাষার ঠাঁই না-হয় মানা গেল, কিন্তু ইংরেজির পাশে কি জায়গা দেওয়া যেত না বাঙালির প্রাণের ভাষাকে?

তবে এব্যাপারে একা বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুললে ঘোরতর অন্যায় হবে৷ কারণ, তৃণমূল কংগ্রেসও যে ২৯১ আসনের প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করেছে, তাতেও অদ্ভুত ভাবে জায়গা হয়নি বাংলা ভাষার৷ সেখানে কেবলই উপস্থিতি ইংরেজির৷ ভোট বৈতরণি পেরোতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও যেখানে লগ্নি করেছেন বাংলা ও বাঙালির গর্বে, সরব হচ্ছেন বাংলাকে ধ্রুপদী ভাষার মর্যাদা দেওয়ার দাবিতে, সেখানে তাঁর তালিকাতেও বাঙালির এই নিজস্ব আখরের অভাব কি বড় বেশি বেমানান নয়?

Around The Web

Trending News

You May like