Aajbikel

‘বিস্ময় বালক’! মাত্র ১৩ বছর বয়সে IIT, ২৪-এ ‘অ্যাপলে’র উচ্চপদে এই কৃষক-সন্তান

 | 
সত্যম

 কলকাতা: তিনি আক্ষরিক অর্থেই চাষার বেটা৷ কৃষিকাজ করে জীবিকা পালন করতেন তাঁর বাব৷ ছোট থেকেই আর্থিক প্রতিব্ধকতা নিয়ে বেড়ে উঠেছেন বিহারের ভোজপুরের বাসিন্দা সত্যম কুমার৷ কিন্তু ক্ষুরধার মস্তিষ্ক, অধ্যাবসায় ও পরিশ্রম তাঁকে পৌঁছে দিয়েছে সাফল্যের চূড়ায়৷ মাত্র ১৩ বছর বয়সে আইআইটির প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে নজির গড়েন ভারতের এই ‘বিস্ময় বালক’৷ 

প্রতি বছর জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় বসেন লক্ষ লক্ষ পরীক্ষার্থী৷ লক্ষ্য, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি বা আইআইটি৷ কিন্তু সফল্য ধরা দেয় গুটিকয়েকের হাতে।সাধারণত দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষার পরেই জয়েন্ট এন্ট্রান্সে বসেন দেশের অধিকাংশ পরীক্ষার্থী। তবে সবকিছুরই ব্যতিক্রম থাকে। তেমনই এক ব্যতিক্রম হলেন সত্যম কুমার। মাত্র ১৩ বছর বয়সে আইআইটির প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন এই কৃষক সন্তান৷ 



২০১২ সালে জয়েন্ট ৬৭০ র‌্যাঙ্ক করে আইআইটিতে ভর্তি হন সত্যম৷  সর্বকনিষ্ঠ ভারতীয় হিসাবে এই নজির রয়েছে তাঁর ঝুলিতে৷ যদিও ২০১১ সালে প্রথমবার আইআইটি পরীক্ষায় বসেছিলেন তিনি। কিন্তু সে বছর সফল হতে পারেননি৷ ২০১২ সালে সুযোগ এলেনও আইআইটিতে ভর্তির সুযোগ পাওয়া খুব সহজ ছিল না৷ অর্থ ছিল বড় বাধা৷ তবে সত্যম থেমে থাকেননি৷ ২০১৮ সালে কানপুর আইআইটি থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করেন৷ এর পর গবেষণার জন্য চলে যান আমেরিকার টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ে৷ গবেষণা শেষ করার পর মাত্র ২৪ বছর বয়সে ‘অ্যাপলে’ শিক্ষানবীশ ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজে যোগ দেন৷ বর্তমানে ‘অ্যাপলে’ উচ্চপদে কর্মরত রয়েছেন ভারতের এই ‘বিস্ময় বালক’।

Around The Web

Trending News

You May like