×

 ‘পরিবারতন্ত্র গণতন্ত্রের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক’, সংবিধান দিবসে কংগ্রেসকে তীব্র আক্রমণ মোদীর

 
মোদী

নয়াদিল্লি:  সংবিধান দিবসে নাম না করে কংগ্রেসকে বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ খোঁচা দিলেন পরিবারতন্ত্র নিয়ে৷ তিনি বলেন, ভারত একটি সংকটের দিকে এগিয়ে চলেছে৷ যা উদ্বেগের৷ একটি পরিবার প্রজন্মের পর প্রজন্ম কোনও পার্টিকে নিয়ন্ত্রণ করলে তা সুস্থ গণতন্ত্রের জন্য ভালো নয়৷ 

আরও পড়ুন- গণনা স্থগিতের আর্জি! ত্রিপুরা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ তৃণমূল

সংবিধান দিবসে বক্তব্য রাখার সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘পরিবারতন্ত্র দেশের জন্য বিপজ্জনক। যাঁরা সংবিধানকে রক্ষা করতে চায়, তাঁদের কাছে পরিবারতান্ত্রিক দল খুবই উদ্বেগের৷ ভারত একটি সংকটের দিকে এগিয়ে চলেছে৷’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘কোনও রাজনৈতিক দল যখন লোকতান্ত্রিক চরিত্রকে ক্ষুণ্ণ করে তখন কীভাবে সংবিধানের মর্যাদা রক্ষা করবে? একটা দল পরিবারের জন্য এবং পরিবারের দ্বারা পরিচালিত হয়। পার্টি ফর দ্য ফ্যামিলি, বাই দ্য ফ্যামিলি। এর বেশি কিছু বলার দরকার আছে কি?’’ উল্লেখ্য, আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরু হচ্ছে শীত কালীন অধিবেশন৷ তার আগে কৌশল বৈঠকে বসেন মাল্লিকার্জুন খাড়গে৷ আজ সংবিধান দিবসের অনুষ্ঠান এড়িয়ে যায় কংগ্রেস-তৃণমূল কংগ্রেস সহ ১৪টি রাজনৈতিক দল৷ 


এদিন কংগ্রেসের বিরুদ্ধে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, পরিবারতান্ত্রিক রাজনীতি মানে এটা বলতে চাই না যে একই পরিবারের একাধিক সদস্য নির্দিষ্ট দলের অংশ হতে পারবে না৷ নিজের যোগ্যতায়, মানুষের আশীর্বাদে কেউ রাজনীতিতে আসতেই পারে৷ কিন্তু যখন একটি দল একটি পরিবারের দ্বারা পরিচালিত হয়, সেটা গণতন্ত্রের পক্ষে ভয়ঙ্কর৷’’

অন্যদিকে, সংবিধান দিবসে ট্যুইট করেছে কংগ্রেসও৷ দলের তরফে বলা হয়েছে, “আমাদের সংবিধান, চিন্তা-ভাবনার প্রকাশ, বিশ্বাস, আস্থা এবং ধর্মাচরণের স্বাধীনতা দিতে অঙ্গীকারবদ্ধ। তবে গত ৭ বছরে মোদী সরকার এই মৌলিক অধিকারগুলোকে ধ্বংস করে দিয়েছে। তাই আমাদের পাল্টা লড়াই চালাতে হবে।’’
  

 

From around the web

Education

Headlines