×

জলের তলায় কাদায় আটকে বহু মৃতদেহ! আশঙ্কা উদ্ধারকারী দলের

 
morbi

গান্ধীনগর: গুজরাতের মোরবিতে নদীর উপর থাকা ঝুলন্ত সেতু ভেঙে পড়েছে এবং তাতে ১৪০ জনের বেশি মৃত্যু ঘটেছে। তবে মৃতের সংখ্যা যে আরও বাড়তে পারে তার আশঙ্কা এখনও আছে কারণ অনুমান করা হয়েছে এখনও নদীর জলের তলায় কাদায় আটকে রয়েছে বহু মৃতদেহ। সেগুলি উদ্ধার করার চেষ্টা জারি। সেতু বিপর্যয়ের ঘটনার প্রায় ৪০ ঘণ্টার ওপর কেটে গেলেও এখনও ঠিক কতজনের মৃত্যু হয়েছে তা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।

আরও পড়ুন- গায়ের রং কালো করে দারিদ্র্যতার ভান, সমালোচনার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায় 

এই সেতুতে সাত মাস ধরে সংস্কারের কাজ চলছিল৷ সংস্কারের পর দিন কয়েক আগেই তা জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়। নতুন করে সেতু উদ্বোধন হওয়ার ৬ দিনের মাথায় এই বিপর্যয়। গত রবিবার সন্ধ্যায় ওই সেতুটিতে প্রায় ৫০০ জন উঠে পড়েছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যায়, সেতুর ওপর রীতিমতো লাফালাফি করছেন অনেকে। এর পরেই নদীর জলে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে সেতুটি৷ এতক্ষণে যতগুলি মৃতদের উদ্ধার হয়েছে তাঁদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা গিয়েছে। তবে বহু মানুষ যে এই মুহূর্ত পর্যন্ত নিখোঁজ তাও জানা গিয়েছে। আশঙ্কা, তাঁদের মৃতদেহই কাদায় আটকে আছে।

ইতিমধ্যে আবার আন্তর্জাতিক মহল থেকে শোকবার্তা এসেছে মোদীরাজ্যের এই ঘটনার জন্য। ঝুলন্ত সেতু বিপর্যয়ের ঘটনায় শোকজ্ঞাপন করেছেন আমেরিকা, রাশিয়ার প্রেসিডেন্টরা। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানিয়েছেন, তিনি মৃতদের পরিবারকে সমবেদনা জানাচ্ছেন এবং ভারতের পাশে আছেন। দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক নিবিড় তাই এই কঠিন সময়ে তারা পাশে রয়েছেন। রাশিয়ান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানিয়েছেন, 'গুজরাতে সেতু বিপর্যয়ের ঘটনায় মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি'। এছাড়া চিন, নেপাল, ইজরায়েল, শ্রীলঙ্কা, সৌদি আরব থেকেও ভারতের জন্য বার্তা এসেছে।

From around the web

Education

Headlines