Aajbikel

নতুন বছরে মহাকাশে নতুন ইতিহাস ভারতের, সূর্যের সবচেয়ে কাছের ঠিকানায় পৌঁছে গেল আদিত্য-এল১

 | 
আদিত্য এল ১

 কলকাতা:  মহাকাশ গবেষণার পথে আরও একটা মাইলফলক ছুঁল ইসরো৷ চাঁদের মাটি ছোঁয়ার পর সফল ভারতের প্রথম সৌর অভিযান৷ সূর্যের ঘরে উঁকি-ঝুঁকি দিতে নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে গেল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার তৈরি প্রথম সৌরযান আদিত্য এল-১৷ বছরের শুরুতেই ইসরোর এই সাফল্যে উচ্ছ্বসিত গোটা দেশ৷ বিজ্ঞানীদের কুর্নিশ জানালেন প্রধানমন্ত্রী৷ 


২০২৩ সালের ২ সেপ্টেম্বর যাত্রা শুরু করেছিল আদিত্য৷ ২০২৪ সালের ৬ জানুয়ারি, 'ল্যাগরেঞ্জ পয়েন্ট বা এল ১ পয়েন্টের 'হ্যালো' কক্ষপথে ঢুকে পড়ল ভারতের সৌরযান৷ বিকেল ৪টে বেজে ২৫ মিনিটে এক্স হ্যান্ডলে পোস্ট করে এই সুখবর দেয় ইসরো। পৃথিবী থেকে যার দূরত্ব ১৫ লক্ষ কিলোমিটার৷ আগামী পাঁচ বছর এটাই হবে আদিত্যর ঠিকানা৷ সূর্যকে খুব কাছ থেকে পর্যবেক্ষণ করবে সে৷ সংগ্রহ করে পাঠাবে নানা তথ্য৷ চাঁদের কক্ষপথে থাকা ল্যাগারেঞ্জ পয়েন্টে বসে সারা বছর ধরে সূর্যের উপর স্পষ্টভাবে নজরদারি চালাতে পারবে ইসরোর সৌরযান। মহাকাশের একটি স্থিতিশীল জায়গা হল এই পয়েন্ট। এটি মহাকাশের এমন একটি জায়গা, যেখানে সূর্য এবং পৃথিবীর মতো দুটি বিশাল ভরযুক্ত জিনিসের মাধ্যাকর্ষীয় টানের মধ্যে ভারসাম্য থাকে এবং সেখানে অবস্থান করতে পারে মহাকাশযানের মতো ছোট কোনও জিনিসও। গত চার মাস ধরে ১৫ লক্ষ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে এই স্থানে পৌঁছেছে আদিত্য এল-১৷ ওই এলাকায় আগে থেকেই নাসার আরও চারটি মহাকাশযান ঘোরাফেরা করছে। তারাও সূর্যকে পর্যবেক্ষণ করছে। তবে এই প্রথম সূর্যের এত কাছাকাছি পৌঁছল ভারতের কোনও মহাকাশযান৷ 


তবে আদিত্যকে এল-১ কে ল্যাগারেঞ্জ পয়েন্টে বসানোর কাজটা রীতিমতো চ্যালেঞ্জিং ছিল। গতি ও দিকনির্দেশের সঠিক সমন্বয় না ঘটলে গন্তব্যে পৌঁছতে পারত না আদিত্য৷ এই মহাকাশযান কোথা থেকে কোথায় যাবে, সে সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা থাকাটা অত্যন্ত জরুরি ছিল৷ এই ট্র্যাক করার পদ্ধতিকে বলে অরবিট ডিটারমিনেশন৷ এই প্রকল্পের জন্য খরচ হয়েছে ৪০০ কোটি টাকা৷  আদিত্য-এল ১ মিশনের প্রকল্প ডিরেক্টর নিগার সাজি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছে, এই মিশন শুধু সূর্যকে পর্যবেক্ষণই করবে না৷ বিজ্ঞানীদের হাতে পৌঁছে দেবে সৌর ঝড়ের তথ্যও৷ এর মাধ্যমে ভারতের পঞ্চাশ হাজার কোটি টাকা মূল্যের ৫০টি স্যাটেলাইটরে রক্ষা করা সম্ভব হবে। অন্য কোনও দেশ সাহায্য চাইলে, তাদের পাশেও দাঁড়ানো সম্ভব হবে৷ এই মিশন দেশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। 


শনিবার সৌর-অভিযানের সাফল্যের খবর এক্স হ্যান্ডেলে পোস্ট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি লিখেছেন, ‘‘ভারত আরও এক মাইলফলক গড়ল। দেশের প্রথম সৌর পর্যবেক্ষণকারী মহাকাশযান আদিত্য-এল১ তার গন্তব্যে পৌঁছেছে। এটি আমাদের বিজ্ঞানীদের নিরলস পরিশ্রমের ফল। ইসরোর এই অভাবনীয় সাফল্যে সারা দেশের সঙ্গে আমিও গর্বিত। মানব সভ্যতার স্বার্থে আমরা বিজ্ঞানের এমনই আরও নতুন দিগন্ত উন্মোচন করতে থাকব।’’
 

Around The Web

Trending News

You May like