×

বৃষ্টি-তুষারপাতে আরও জটিল অবস্থা জোশীমঠের, ভোগান্তি বাড়ছে স্থানীয়দের

 
j

দেরাদুন: দ্রুতগতিতে বসে যাচ্ছে উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠ৷ শেষ ১২ দিনে অনেকটা মাটি বসে গিয়েছে এই ছোট্ট জনপদের মাটি৷ ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা বা ইসরোর উপগ্রহ চিত্রে ধরা পড়েছে এমনই ভয়ঙ্কর ছবি৷ এই নিয়ে চিন্তার কোনও শেষ নেই ভারত সরকারের। এদিকে এই অবস্থার মধ্যেই জোশীমঠে শুরু হয়েছে বৃষ্টি এবং তুষারপাত। যা আরও দুর্ভোগ বাড়িয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের।

আরও পড়ুন-জাতীয় সঙ্গীত বিতর্ক মামলায় আপাত স্বস্তি মমতার, জারি সমন হল বাতিল

এমনিতেই জোশীমঠের বাসিন্দারা নিজেদের ঘরবাড়ি এবং জীবিকা হারিয়ে এখন দিশেহারা অবস্থায় রয়েছেন। তার মধ্যে এখন বৃষ্টি এবং তুষারপাতের ফলে আরও অনিশ্চয়তা তাদয়ের জীবন জুড়ে। শুক্রবার শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে আউলিতে তুষারপাত শুরু হয়েছে। নৈনিতাল, চক্রতা এবং উত্তরকাশীতেও হয়েছে বরফপাত। আবার অন্য কিছু অংশ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিও হয়েছে। সব মিলিয়ে চরম ভোগান্তিতে জোশীমঠবাসী। ইন্ডিয়ান স্পেস রিসার্চ অর্গানাইজেশনের ন্যাশনাল রিমোট সেন্সিং সেন্টারের তরফে যে উপগ্রহ চিত্রটি প্রকাশ করা হয়েছে, তাতে দেখা গিয়েছে, ২০২২ সালের ২৭ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত ৫.৪ সেমি বসে গিয়েছে উত্তরাখণ্ডের জোশীমঠ।

সরকার সূত্রে জানা গিয়েছে, জোশীমঠের ৭৬০-এরও বেশি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে। এছাড়াও একাধিক হোটেল, সেনা শিবির, মন্দির, মসজিদ সব জায়গায় ফাটল দেখা দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত প্রায় ১৬৯টি পরিবারকে ত্রাণ শিবিরে পাঠানো হয়েছে। জোশীমঠকে ‘বসবাসের অযোগ্য’ বলেও ঘোষণা করেছে উত্তরাখণ্ড সরকার। একের পর এক প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের জেরে দীর্ঘদিন ধরেই জোশীমঠের মাটি আলগা হচ্ছিল। ভূমিকম্প, ভূমিধস, হড়পা বানের কারণে ধ্বংস হয়ে যাচ্ছি এই পার্বত্য শহর।

From around the web

Education

Headlines