×

শ্রদ্ধা কি মৃত না নিখোঁজ? আরও জটিল হচ্ছে দিল্লির ঘটনা

 
শ্রদ্ধা আফতাব

নয়াদিল্লি: আফতাব পুনাওয়ালা কি আদৌ শাস্তি পাবে? পুলিশ কি প্রমাণ করতে পারবে যে সে-ই খুন করেছে শ্রদ্ধা ওয়াকারকে? যত দিন এগোচ্ছে এইসব প্রশ্ন যেন আরও বেশি করে মানুষের মনে সৃষ্টি হচ্ছে। কারণ একটাই, আফতাবের দাবি মতো শ্রদ্ধার মৃতদেহ খুঁজে পাচ্ছে না পুলিশ। আর কাউকে মৃত প্রমাণ করতে হলে তাঁর দেহ পাওয়াটা জরুরি, এমনটাই বলছে আইন। তাহলে কি আফতাব তার কৃতকর্মের জন্য শাস্তি পাবে না? কোন দিকে এগোচ্ছে পুলিশের তদন্ত, সেটাই বড় বিষয়।

আরও পড়ুন- জেলে বন্দি মন্ত্রীকে তেল মালিশ! কী ভাবে ফাঁস ছবি, ED-র বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার নোটিস

দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে যে, আফতাব শ্রদ্ধাকে খুনের কথা স্বীকার করেছে। জানিয়েছে, রাগের বশে সে তাকে খুন করে। আদালতেও নাকি এমনটাই জানিয়েছে। কিন্তু আফতাবের আইনজীবী বলছেন অন্য কথা। তিনি জানান, এমন কোনও স্বীকারোক্তি আফতাব করেনি। এদিকে পুলিশের হাতে এমন কোনও প্রমাণ উঠে আসেনি যার ভিত্তিতে বলা যায় শ্রদ্ধা খুন হয়েছেন। এতএব আইনের চোখে এখনও তিনি নিখোঁজ। সুতরাং এটাও এই মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না যে আফতাব শ্রদ্ধাকে খুন করেছে। অন্যদিকে, খুন হলে তার একটা অস্ত্র থাকবে। পুলিশ জানিয়েছিল, আফতাব তাদের কাছে বলেছে যে, রাগের মাথায় শ্বাসরোধ করে শ্রদ্ধাকে খুন করার ধারাল অস্ত্র দিয়ে তার দেহের ৩৫ টুকরো করেছিল সে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত পুলিশ তেমন কোনও অস্ত্র পায়নি। আফতাবের ফ্ল্যাট থেকে একটি অস্ত্র উদ্ধার হলেও তা দিয়েই যে শ্রদ্ধার দেহের টুকরো করা হয়েছে সেটাও প্রমাণসাপেক্ষ।

আফতাবের দাবি অনুযায়ী, মেহরৌলির জঙ্গলে সে শ্রদ্ধার দেহের টুকরো ফেলে। কিন্তু বুধবার পর্যন্ত পুলিশ জঙ্গলে তল্লাশি চালিয়ে শরীরের বড় কোনও টুকরো এখনও খুঁজে পায়নি। হাতের কবজি, চোয়ালের মতো টুকরো পেলেও তা আদতে শ্রদ্ধার কিনা তা জানতে এখনও সময় লাগবে। আফতাব-শ্রদ্ধার ফ্ল্যাটে রক্তের দাগ ছিল। শেটি আদৌ কার সেটা জানতেও ফরেনসিক পরীক্ষা চলছে। তার রিপোর্ট আসতেও সময় লাগবে। সুতরাং বলা যায়, আফতাবই শ্রদ্ধাকে খুন করেছে বা শ্রদ্ধা ওয়াকার নামের মেয়েটি মৃত, এমন কোনও পোক্ত প্রমাণ পুলিশের কাছে নেই। অন্তত এই মুহূর্ত পর্যন্ত। তাই এটাও এখনও বলা সম্ভব নয় যে, আফতাব কতটা এবং কী ভিত্তিতে শাস্তি পেতে পারে। আগামী দিনে তদন্ত কোন দিকে এগোয় এখন সেটাই দেখার। 

From around the web

Education

Headlines