×

বিচ্ছেদের পরেও চোখে প্রাক্তনের ঘোর? সব ভুলে নতুন জীবন পেতে কী করবেন? 

 
বিচ্ছেদ

কলকাতা:  কখনও কখনও প্রেমের সম্পর্কে আচমকাই ঘটে ছন্দপতন৷ কোনও এক ভুল বোঝাবুঝি বা ছোট কোনও ঘটনাতেও এক পলকে ভেঙে যায় প্রেমের সম্পর্ক৷ সম্পর্কে ইতি টানলেও প্রাক্তনকে ভোলা কি এতটাই সহজ? সম্পর্কের ঘোর থেকে চট করে মুক্তি পাওয়া যায় না৷ মনের মধ্যে চলতে থাকে অনেক  দ্বিধা-দ্বন্দ্ব, সংশয়৷ কাজ করে এক  মানসিক অস্থিরতা৷ বহু মানুষই আছে যাঁরা বিচ্ছেদের পরেও প্রাক্তনকে ভুলতে পারেন না। সেই ক্ষতের প্রভাব পড়ে মানসিক ও শারীরিক ক্ষেত্রে৷ কী ভাবে পুরনো টান ভুলে বেরিয়ে আসবেন? কী ভাবে জীবনে এগিয়ে যাবেন? রইল কিছু উপায়৷

আরও পড়ুন- মাত্র ১৮ সেকেন্ড! চোখের পলকে শাড়ি পরিয়ে গিনিস বুকে নাম তুলেছেন কলকাতার এই শিল্পা! উপার্জন আকাশ ছোঁয়া

বাস্তবে বাঁচুন: বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তে যদি স্থির থাকেন, তাহলে অবিলম্বে প্রাক্তনের সঙ্গে সব রকম যোগাযোগ বন্ধ করে দিন। মনে যেন কোনওরকম আশা বা প্রত্যাশা উঁকি না দেয়৷ অনেকে প্রেমের সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে এলেও বন্ধুত্ব রক্ষার চেষ্টা করেন। কিন্তু প্রাক্তনকে জীবনের অংশীদার করার জন্য একটা পরিণত মনের প্রয়োজন৷ সেটা অনেকেরই থাকে না৷ তাই যোগাযোগ থাকলে পিছুটানও বাড়বে৷ সেক্ষেত্রে বাঁধন ছিঁড়ে বেড়িয়ে আসা মুশকিল হয়ে পড়বে৷ 


নিজেকে আরও বেশি সময় দিন: বিচ্ছেদের জন্য নিজেকে দোষারোপ করা নয়৷ নিজের মধ্যে খুঁত খোঁজার চেষ্টা না করাই ভালো৷ তার চেয়ে বরং নিজেকে একটু বেশি করে ভালোবাসতে শিখুন৷ নিজের জীবনকে গুছিয়ে নেওয়াটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ৷ বিচ্ছেদের ফলে মনের উপর যে চাপ পড়ে, সেই চাপ কাটাতে কোথাও ঘুরে আসতে পারেন। নিজের পছন্দের কাজগুলি আরও বেশি করে করুন৷ কাছের বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সঙ্গে সময় কাটান। 


সময়ের সঙ্গে চলুন: কাছের মানুষের থেকে আঘাত পেলে অনেক সময় মনের গহনে অজান্তেই রাগ জন্ম দেয়। যা থেকে তৈরি হয় ঘৃণা। যা মানসিক স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই ক্ষতিকারক৷ ববং অতীতের সঙ্গে বোঝাপড়া করে নিন। অতীতকে আঁকড়ে না থেকে সামনের দিকে এগিয়ে চলুন৷ সময় সব ক্ষতে প্রলেপ লাগিয়ে দেবে৷ তাই নিজেকে একটু বেশি করা সময় দিন৷ 


সৃজনশীল কাজের সঙ্গে যুক্ত হন: বিচ্ছেদের পর অনেকেই মানসিক চাপ কমাতে তিক্ত স্মৃতি ভুলে সুখের স্মৃতিগুলিকে আকড়ে ধরতে চায়। এই সময় মন না চাইলেও চেষ্টা করুন নিজেকে কোনও না কোনও সৃজনশীল কাজের সঙ্গে যুক্ত রাখতে। এতে মন ভালো থাকবে৷  

প্রাক্তনকে এড়িয়ে চলুন: সব রকম ভাবেই প্রাক্তনকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন৷ সোশ্যাল মিডিয়ার ফ্রেন্ড লিস্ট থেকে তাঁকে ব্লক করে দিন৷ তাঁর উপস্থিতি রয়েছে, এমন কোনও জায়গায় প্রথম প্রথম না যাওয়াই ভাল। তাঁর ছবি দেখলে বা তাঁর কর্মকাণ্ডের ছবি আপনার সামনে ক্রমাগত ভাসতে থাকলে তাঁর সঙ্গে কাটানো মুহূর্তগুলি আপনাকে আরও বেশি কষ্ট দেবে। ভুলতে দেবে না পুরনো স্মৃতি।


 


 

From around the web

Education

Headlines