×

'টুইনডেমিক' সবচেয়ে ভয়াবহ হতে পারে এই বছরেই! বিপদসঙ্কেত গবেষকদের

 
করোনা

নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক হয়নি এবং কবে হবে তাও এই মুহূর্তে বলা সম্ভব নয়। একাধিক গবেষণায় ইতিমধ্যেই প্রকাশ পেয়েছে যে, আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই আসতে পারে করোনা ভাইরাস তৃতীয় ঢেউ। সেই নিয়ে উদ্বেগের শেষ নেই। এবার তার সঙ্গে আরও বড় আশঙ্কার খবর, ফ্লু ভাইরাসের বাড়বাড়ন্ত। মনে করা হচ্ছে, এই বছর করোনার সঙ্গে ফ্লু ভাইরাস অর্থাৎ ইনফ্লুয়েঞ্জাও অন্যান্য বছরের থেকে বেশি বৃদ্ধি পাবে। এটিকেই বলা হচ্ছে, 'টুইনডেমিক', অর্থাৎ দুটি মহামারি একসঙ্গে। 

আরও পড়ুন- ‘মেদিনীপুর থেকে ১০০ ছেলে পাঠালেই ত্রিপুরা ঠান্ডা হয়ে যাবে!’ হুঁশিয়ারি সায়নীর

আগেই আমেরিকার পিটসবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় এবং হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় এই তথ্য সামনে এসেছিল। সেই গবেষণাকে প্রাধান্য দিয়েই বলা হচ্ছে যে, চলতি বছর এই 'টুইনডেমিক' বড় আকার ধারণ করতে পারে বিগত বছরগুলির তুলনায়। সেপ্টেম্বরের শেষের দিক থেকে শুরু হতে পারে ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের দাপট। শীতকাল শেষ না হওয়া পর্যন্ত চলবে সেটি। তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাপার ঠিক এই সময়েই করোনাভাইরাস তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার কথা রয়েছে। সুতরাং আশঙ্কা যদি সত্যি হয় তাহলে এই একই সময়ে দুটি ভাইরাস দাপট দেখাবে! আর এটিকেই বলা হচ্ছে 'টুইনডেমিক'। ইতিমধ্যেই সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি দাবি করেছে যে, ২০২০-২০২১ সালে ফ্লু ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় সংখ্যা অন্যান্য বছরের তুলনায় বেশি। তাই বারংবার সচেতন থাকতে বলা হচ্ছে সকলকে। কোভিড বিধি মেনে চলতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে আগেই মতোই। 

আরও পড়ুন- এবার পুলিশের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন অর্জুন

অন্যদিকে, টিকাকরণে জোর দেওয়ায় কথা বলা হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, যারা টিকা নিয়েছেন তারা এই ভাইরাস থেকে অতটাও ক্ষতিগ্রস্ত হবেন না। কিন্তু যারা নেননি, তাদের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা সবথেকে বেশি। ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসের টিকা দেওয়া আরো বেশী বাড়াতে হবে এবং একই সঙ্গে চলবে করোনাভাইরাস টিকাকরণ। এভাবেই মহামারী আবহ কাটিয়ে উঠতে পারবে সাধারণ মানুষ। উল্লেখ্য, সাধারণত সারা বছর মানুষ ইনফ্লুয়েঞ্জা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়। এটি সাধারণ জ্বর এবং সর্দির কারণ। 

From around the web

Education

Headlines