×

শীতের মাস মানেই সর্দি-কাশি-জ্বর, কেন শীতেই এত রোগ? জানলে অবাক হবেন ‘নাক’ থেকেই সমস্যা নাকে-ই সমাধান!

 
করোনা

নয়াদিল্লি: শীতকাল মানেই জুবুথুবু, আর একগুচ্ছ রোগের দাপট। সর্দি-কাশি-জ্বর তো খুব স্বাভাবিক অসুখ শীতকালের। প্রধান সমস্যা শীতকালেই শ্বাসকষ্ট জনিত রোগ বেশি হয়। কিন্তু কেন শীতকালেই এই রোগের আস্ফালন? এই নিয়ে বিস্তর গবেষনা করে চলেছেন চিকিত্সকরা। সেই গবেষণাই দিচ্ছে এক অভিনব তথ্য। শীতকালে নাকি অসুখ হওয়ার মূল কারণ আমাদের নাক। বোস্টনের নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি, ম্যাসাচুসেটস আই এন্ড ইয়ারের যৌথ গবষেনা জানাচ্ছে

নাক থেকে শীতে অসুখ
•    মানবশরীরের নাক সবার প্রথমে বাইরের পরিবেশের সম্মুখীন হয়
•    শরীরের নাক প্রথমেই নিজের সর্বক্ষমতা দিয়েই ভাইরাস আটকানোর চেষ্টা করে
•    নাকের ভিতর ভাইরাস গেলেই নাক তা তরল আকারে বাইরে বার করে দেওয়ার চেষ্টা করে
•    সেই প্রক্রিয়া ব্যর্থ হলেই শরীরে ভাইরাস ঢুকে পরে সেই নাক দিয়েই

ম্যাসাচুসেটসের চিকিত্সকরা জানাচ্ছেন,
•    নাক অনেকটাই মানবশরীরে প্রাচীরের কাজ করে
•    যে প্রাচীর শত্রুপক্ষকে আটকানোর আপ্রান চেষ্টা করে
•    ব্যর্থ হলেই সেই শত্রু ঘরে ঢুকবে নিঃশব্দে
•    নাক ও ভাইরাসের বিষয়টা অনেকটা সেরকমই
শীতকালে নাকের ক্ষমতা অনেকটাই কমে যায় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। নাক যতটা সম্ভব চেষ্টা করে চলে ভাইরাস আটকানোর। কিন্তু, নাকের সংকোচন ও প্রসারন শীতকালে প্রভাবিত হয়।

 

শীতকালে দুর্বল নাক-

•    গবেষণা বলছে, নাকের তাপমাত্রা শীতকালে ৯ ডিগ্রি ফারেনহাইট কমে যায়
•    সাধারণত নাকের তাপমাত্রা ৭৪ থেকে ৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইটের মধ্যে ওঠানামা করে
•    এর ফলেই নাকের ভাইরাসকে রোধ করার ক্ষমতা অনেকটাই কমে যায়
•    তাই শীতকালেই সবচেয়ে বেশি সর্দি, কাশি, ফুসফুসে সংক্রমণ, শ্বাসকষ্টের মতো অসুখ হয়ে থাকে
করোনার ক্ষেত্রেও ভাইরাস নাক দিয়েই সবচেয়ে বেশি প্রবেশ করে ফুসফুসকে সংক্রমিত করে। শীতকালে এই ভাইরাস রোধের ক্ষমতা নাকের কমে যায় বলেই চিকিত্সকদের মত।

 

সামাধানের পথ-


•    চিকিত্সকরা মনে করছেন, নাকের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর প্রক্রিয়া বার করতে পারলেই আটকানো যাবে ভাইরাসকে
•    শীতকালে নাকের তাপমাত্রা কমে যাওয়া বা এই ধরণের বিষয়কে রোধ করার উপায় বার করাই লক্ষ্য হওয়া উচিত


যদি নাক শক্তিশালী হয় তাহলেই শরীর হবে মজবুত। নাক থেকেই সব সমস্যা আবার সমাধানের পথ। তাই নাকের যত্ন নিন, নাক মানবশরীরের প্রাচীর যেখানে ভাইরাস প্রবেশ করার আগে তাকে নাকের সম্মুখীন হতে হয়। তাই নাক আছে তো মানবশরীরের ভারসাম্য আছে, সুস্থতা আছে।

From around the web

Education

Headlines