Aajbikel

বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন সুস্মিতা সেন? পাত্র কে চেনেন?

 | 
সুস্মিতা

মুম্বই: বোল্ড মডেল থেকে দাপুটে অভিনেত্রী৷সুস্মিতা সেন মানেই বারবার চর্চার কেন্দ্রে জায়গা করে নেওয়া। সেই বাঙালী কন্যেই এবার মুখ খুললেন বিয়ের প্রসঙ্গে। কবে ছাদনাতলায় যাচ্ছেন প্রাক্তন ব্রহ্মাণ্ড সুন্দরী? এই প্রশ্নের মুখোমুখি এর আগেও একাধিকবার হয়েছেন সুস্মিতা। তবে এবার দিলেন উত্তর… সেটাও নিজস্ব স্টাইলে।       

বর্তমানে চর্চিত প্রেমিক রহমান শলের সঙ্গে সম্পর্ক জুড়েছে প্রাক্তন মিস ইউনিভারসের… ২০১৮ সাল থেকে দুজনের সম্পর্কের শুরু হলেও মাঝে বছর দুয়েকের জন্য দূরে চলে যান সুস্মিতা-রোহমান। তবে ফের এক হয়েছে দুটি মন।  

মডেলিংয়ে জগৎজোড়া খ্যাতির পর ১৯৯৬ সালে বলিউডে পা রাখেন সুস্মিতা সেন। একের পর এক সিনেমায় কাজ করেছেন। অভিনয় কেরিয়ার সেভাবে জ্বলজ্বলে না হলেও সুস্মিতার ব্যক্তিগত জীবন কখনও প্রচারের আলো থেকে সরে যায়নি। ইন্ডাস্ট্রি বা ইন্ডাস্ট্রির বাইরের একাধিক নামী-দামি ব্যক্তিত্বের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে তাঁর। কখনও রণদীপ হুডা, কখনও মুম্বইয়ের রেস্তরাঁ মালিক হৃতিক ভাসিন, কখনও পরিচালক বিক্রম ভট্ট, আবার কখনও ললিত মোদী… আবার কখনও নিজের চেয়ে বয়সে ছোট রোহমান শলের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে তাঁর। তবে বিয়ে করেননি কাউকেই। একা হাতেই মানুষ করছেন দুই পালিতা মেয়ে রেনে ও আলিশাকে। তাদের নিয়ে এখন সংসার প্রাক্তন ব্রহ্মাণ্ডসুন্দরী। এবার বিয়ের খবর নিয়ে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। কারণ, সদ্য অভিনেত্রীর জীবনে ফিরে এসেছেন তাঁর পুরনো প্রেমিক। পুরনো মানুষকে অভিনেত্রীর কাছাকাছি দেখে অনেকেই এখন মনে করছেন, শেষমেশ রোহমানের সঙ্গেই বুঝি ঘর বাঁধবেন সুস্মিতা! সত্যি কী তাই?  

সুস্মিতার কথায়,‘‘হ্যাঁ এখনও আমাকে বিয়ে নিয়ে অনেকেই জিজ্ঞেস করেন। সকলেই চান আমি সংসার করি। আমার যে বিয়েতে অবিশ্বাস রয়েছে তেমন নয়। বিয়ের বন্ধনে আস্থা রয়েছে, আমার চারপাশে আমি অনেক সুখী দম্পতিকে দেখেছি। যাঁদের মধ্যে অন্যতম আরিয়া সিরিজ়ের আমার প্রযোজক ও পরিচালক। আসলে সফল বিয়েরে পিছনে প্রয়োজন বন্ধুত্ব ও স্বাধীনতা। তাই আমার প্রিয় হচ্ছে স্বাধীনতা।’’ রোহমনের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে খোলসা না করলেও এখনই যে তিনি বিয়ে করছেন না, স্পষ্ট করে দিলেন সুস্মিতা।

এর আগেও এক সাক্ষাৎকারে বিয়ে নিয়ে মুখ খুলেছিলেন সুস্মিতা সেন। জানিয়েছিলেন, তাঁর দুই মেয়ে চায় না যে তিনি বিয়ে করেন। সেবার সুস্মিতা বলেছিলেন, , ‘আমি যখন রেনে আর আলিশাকে জিজ্ঞেস করি যে কখনও কি ওদের মনে হয়েছে, যে ওদেরও একজন বাবা থাকলে ভালো হত?  বাবা-এই বিষয়টা ওরা Miss করে কিনা? উত্তরে নাকি মেয়েরা জানিয়েছিল ওদের কোনও বাবার দরকার নেই।

Around The Web

Trending News

You May like