×

‘ভেবেছিল দেবকে ভয় দেখাবে’, প্রজাপতি বিতর্কে মুখ খুললেন মিঠুন, দিলেন অশনি সঙ্কেতের ইঙ্গিত 

 
মিঠুন দেব

 কলকাতা: মিঠুন চক্রবর্তী এবং দেব অভিনীত ‘প্রজাপতি’ নিয়ে শুরু থেকেই জমেছিল বিতর্কের মেঘ। বারবার রাজনৈতিক তরজায় জড়িয়েছে শাসক ও বিরোধীরা। সোমবার ছিল ‘প্রজাপতি’র ২৫ দিনের সেলিব্রেশন। সেখানেও উঠল বিতর্কের ঝড়। অনুষ্ঠানে এসে একের পর এক বোমা ফাটালেন মিঠুন চক্রবর্তী৷ সরকারি প্রেক্ষাগৃহ নন্দনে এই ছবির জায়গা না পাওয়া থেকে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের মন্তব্য, সব কিছু নিয়েই সপাটে জবাব দিলেন মিঠুন। প্রজাপতি নিয়ে কটাক্ষ করতে গিয়ে মহাগুরুকে ‘ফ্লপ’ বলে তোপ দেগেছিলেন তৃণমূলের মুখপাত্র। এদিন সেই ফ্লপতত্ত্ব তুলে ধরেই খোঁচা দিলেন মিঠুন৷ বললেন, “আমরা এখানে এসেছি বোধহয় পৃথিবীতে প্রথমবার একটা ফ্লপ ফিল্মকে সেলিব্রেট করতে। এত ফ্লপ হয়েছে যে এর আওয়াজ এরপর অস্কারে শুনতে পাবেন।” দেব প্রসঙ্গে মিঠুন জানান, তাঁর সঙ্গে দেবের সম্পর্ক সততার ও সম্মানের। একইসঙ্গে মিঠুন বলেন, “আমি এখনও বড় তারকা। এখনও যদি আমি চাই ৩৬৫ দিন কাজ করতে পারি। আমার টিআরপি ভেরি হাই। আর প্রজাপতি এত বড় টিআরপি করে দিল, মরা অবধি যাবে না। চেষ্টা করে লাভ নেই।”


এদিকে, প্রজাপতি ছবিতে মিঠুন অভিনয় করায় এই ছবি নন্দনে দেখানো হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছিল গেরুয়া শিবির। শুধু বিজেপি নয়, বিভিন্ন মহলেও একই অভিযোগ শোনী গিয়েছে। তবে এ প্রসঙ্গে এতদিন মুখে কুলুপ এঁটেছিলেন মিঠুন৷ এই প্রথমবার মুখ খুললেন তিনি৷ জানালেন, এই শহরের সমস্ত প্রেক্ষাগৃহই তাঁর কাছে নন্দন। তবে নন্দনের যে একটা আলাদা মান রয়েছে, সে কথাও মেনে নিয়েছেন তিনি।

নন্দনে ছবি বাছাই কমিটি প্রসঙ্গে মহাগুরুর বক্তব্য, “আমি তো বলেছি যতক্ষণ না এই কমিটিতে কে কে আছেন তাঁদের নাম বলবে আমি কোনও জবাব দেবে না। আমি সবার আগে তাদের নাম জানতে চাই। অনীকদার মতো পরিচালক, তার ছবি নেই। প্রজাপতি নেগলেক্টেড। আমি জানতে চাই কারা আছে? আমার কাছে তো সব প্রেক্ষাগৃহই নন্দন। তবে হ্যাঁ নন্দনের একটা আলাদা মাত্রা আছে। বাঙালি ঘেঁষা লোক তো। অবশ্য আমাকে নাকি আর বাঙালি বলা যায় না। যাই হোক তাদের চিন্তা।”

কুণালকে এদিন ফের ‘গঙ্গারাম’ বলে কটাক্ষ করে মিঠুন বলেন, ‘‘নাম নিয়ে কথা বলবেন না। আমি নাম নিয়ে রাজনীতি করি না। আমি এসব ফালতু সময় নষ্ট করতে চাই না। এসব গঙ্গারামদের কথা বলে সময় নষ্ট করতে চাই না। একটা কথা বলি, গঙ্গারাম ভেবেছিল দেবকে ভয় দেখানো যাবে। কারণ উনি তো এখন ওই পার্টির শেষ কথা। তবে দেব ভয় পায়নি। দেব উত্তর দিয়েছে অভিনেতা হিসাবে। পাবলিক প্রথম সপ্তাহেই ছবিটা দেখে মাউথ পাবলিসিটি করেছে। এটা কিন্তু অশনি সঙ্কেত।”


 

From around the web

Education

Headlines