×

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের অভিযোগ, সোশ্যাল মিডিয়াতেই এফআইআরের জবাব দিলেন কঙ্গনা

মুম্বই: সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়েছে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে। এবার তার প্রতিক্রিয়া জানালেন অভিনেত্রী। টুইটে মহারাষ্ট্রের সরকারকে ঠুকলেন তিনি। টুইটারে অভিনেত্রী লিখেছেন, "মহারাষ্ট্রের পাপ্পু সেনা তো আমার উপর অবসেসড! এত মিস কোরো না। আমি খুব শীঘ্রই যাব ওখানে।"
 
 


মুম্বই: সোশ্যাল মিডিয়ায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের অভিযোগে এফআইআর দায়ের হয়েছে বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে। এবার তার প্রতিক্রিয়া জানালেন অভিনেত্রী। টুইটে মহারাষ্ট্রের সরকারকে ঠুকলেন তিনি। টুইটারে অভিনেত্রী লিখেছেন, "মহারাষ্ট্রের পাপ্পু সেনা তো আমার উপর অবসেসড! এত মিস কোরো না। আমি খুব শীঘ্রই যাব ওখানে।"


শনিবার অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত এবং তাঁর দিদি রঙ্গোলি চান্দেলের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে মুম্বই পুলিশ৷ বান্দ্রা মেট্রোপলিটন আদালতের নির্দেশে এই এফআইআর দায়ের করা হয়৷ বলিউডের কাস্টিং ডিরেক্টর এবং ফিটনেস ট্রেনার মুনাওয়ার আলি সায়েদের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতেই এই নির্দেশ দেয় আদালত৷ এর পরিপ্রেক্ষিতেই শনিবার একটি টুইট করেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। সেখানে তিনি লেখেন, "কারা কারা নবরাত্রির উপোস করছেন? আজ নবরাত্রি উৎসবের ছবি। আমিও উপোস করেছি। তবে এই সময় আমার বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে। মহারাষ্ট্রের পাপ্পু সেনা তো আমার প্রতি অবসেসড হয়ে পড়েছে। আমাকে এত মিস করার দরকার নেই। আমি শীঘ্রই ওখানে যাচ্ছি।"


 

null

প্রসঙ্গত, কঙ্গনার নামে একাধিক ধারায় দায়ের হয়েছে মামলা। মুম্বইয়ের বান্দ্রা আদালতে অভিযোগ জানানো হয় কঙ্গনা রানাওয়াত সোশ্যাল মিডিয়ায় বলিউডে হিন্দু-মুসলিমের মধ্যে ঝামেলা লাগানোর চেষ্টা করছেন। ফৌজদারি আইনে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩-এ, ২৯৫-এ এবং ১২৪-এ ধারায় কঙ্গনা ও তাঁর দিদি রঙ্গোলির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে পুলিশ৷ শনিবার সায়েদের আইনজীবী আদালতকে জানান, ‘‘গত দুই মাস ধরে একের পর এক টুইট করে এবং টেলিভিশনের সামনে নেপোটিজম, ফেভারিটিজম, মাদক যোগের প্রসঙ্গ  তুলে বলিউডকে অপমান করে চলেছেন কঙ্গনা৷ এখানেই শেষ নয়৷ তিনি খুবই আপত্তিজনক টুইট করেছেন৷ যা কেবল ধর্মীয় অনুভূতিতেই আঘাত করে না৷ তা যথেষ্ট উস্কানিমূলক৷’’ কেন কঙ্গনা এবং তাঁর দিদি ক্রমাগত এহেন মন্তব্য করে চলেছেন তা খতিয়ে দেখা প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন মুনাওয়ার। সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ও ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টা চালাচ্ছেন কঙ্গনা ও রঙ্গোলি, এই অভিযোগ এনেই আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন মুনাওয়ার আলি সায়েদ৷ জানা গিয়েছে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় তথ্যপ্রমাণ থাকলে, এই ধারায় তাঁকে গ্রেফতারও করা হতে পারে।

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই বিদ্রোহী ভূমিকায় কঙ্গোনা৷ বলিউডের মাদক যোগ থেকে মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করে বিতর্কের ঝড় তুলেছেন তিনি৷ শিবসেনার সঙ্গে শুরু হয়েছে তাঁর বিবাদ৷ বিশেষত পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে মুম্বইয়ের তুলনা করে কঙ্গনার করা টুইটের উপর জোড় দিয়েছেন মুনায়ার আলি সায়েদ৷ কঙ্গোনার দিদি রঙ্গোলিও টুইটারে বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ তোলেন তিনি৷ কয়েক দিন আগে কৃষি বিলের বিরুদ্ধে কৃষকদের আন্দোলনকে সন্ত্রাসবাদের তুলনা করেছিলেন কঙ্গনা। এর পরই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কঙ্গনা রানাওয়াতের কুশপুতুল নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন পঞ্জাবের বহু কৃষক। কৃষকদের সম্পর্কে আপত্তিকর ট্যুইটের অভিযোগে কঙ্গনার বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার নির্দেশ দিয়েছিল আদালত।   

From around the web

Education

Headlines