×

ঐশ্বর্য-আরাধ্যার পর করোনা-জয়ী অমিতাভ, হাসপাতাল থেকে ফিরলেন বাড়ি

মুম্বই: ২৩ দিন টানা যুদ্ধের পর জয়ের হাসি হাসলেন অমিতাভ বচ্চন। অবসান হল প্রতীক্ষার। করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে জলসায় ফিরলেন অমিতাভ বচ্চন। রবিবার বিকেলে বাড়ি ফিরলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই কথা খবর জানিয়েছেন খোদ শাহেনশা। লিখেছেন, “আমার করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছি। বাড়ি ফিরেছি। কোয়ারেন্টাইনে আছি।” এরপরই মা, বাবা ও অনুরাগীদের প্রতি কৃজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি। মা ও বাবার আশীর্বাদ এবং বন্ধু ও অনুরাগীদের প্রার্থনার জন্যই আজ তিনি করোনা মুক্ত বলে জানিয়েছেন বিগ বি। নানাবতী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষতে তাঁর যত্ন নেওয়ার জন্যও ধন্যবাদ জানিয়েছেন অমিতাভ। 
 
 

মুম্বই: ২৩ দিন টানা যুদ্ধের পর জয়ের হাসি হাসলেন অমিতাভ বচ্চন। অবসান হল প্রতীক্ষার। করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়ে জলসায় ফিরলেন অমিতাভ বচ্চন। রবিবার বিকেলে বাড়ি ফিরলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই কথা খবর জানিয়েছেন খোদ শাহেনশা। লিখেছেন, “আমার করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছি। বাড়ি ফিরেছি। কোয়ারেন্টাইনে আছি।” এরপরই মা, বাবা ও অনুরাগীদের প্রতি কৃজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি। মা ও বাবার আশীর্বাদ এবং বন্ধু ও অনুরাগীদের প্রার্থনার জন্যই আজ তিনি করোনা মুক্ত বলে জানিয়েছেন বিগ বি। নানাবতী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষতে তাঁর যত্ন নেওয়ার জন্যও ধন্যবাদ জানিয়েছেন অমিতাভ। 

জুন মাসের প্রথম দিকে অমিতাভের করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা প্রকাশ্যে আসে। জানান ছেলে অভিষেক বচ্চন। টুইট করে তিনি নিজের ও বাবা অমিতাভের করোনা আক্রান্তের খবর দেন। টুইটারে অভিষেক লেখেন, তিনি এবং বাবা অমিতাভ বচ্চন, দুজনের শরীরেই করোন ভাইরাসের সন্ধান মিলেছে। চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি রোয়েছেন তারা। পরিবারের বাকি সদস্য ও হাউজ স্টাফদের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরপরই ঐশ্বর্য রাই বচ্চন ও আরাধ্যা বচ্চনের শরীরে করোনার সন্ধান মেলে। হোম আইসোলেশনে থেকেই তাঁদের চিকিৎসা চলছিল। কিন্তু অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁদেরও নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিছুদিন আগে ছাড়া পেয়েছেন তাঁরা। কিন্তু অভিষেক ও অমিতাভের চিকিৎসা চলছিল।

 

 

তবে এদিন অমিতাভ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেও ছেলে অভিষেক বচ্চন এখনও ছাড়া পাননি। রবিবারও তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। টুইটারে অভিষেক লেখেন, “আমি এখনও করোনা পজিটিভ। হাসপাতালেই রয়েছি। আমার পরিবারের জন্য সবাই প্রার্থনা করেছেন। তাই প্রত্যেককে ধন্যবাদ। আমি খুব শীঘ্রই করোনাকে হারিয়ে দেব। সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে আমিও বাড়ি ফিরে আসব।” তাঁর টুইটের উত্তরে বিপাশা বসু সব অনেকেই অভিষেকের জন্য প্রার্থনা করেছেন।

From around the web

Education

Headlines