Aajbikel

ফের মুখ থুবড়ে পড়ল বাজার, কীভাবে সুরক্ষিত রাখবেন বিনিয়োগ?

 | 
ফের মুখ থুবড়ে পড়ল বাজার, কীভাবে সুরক্ষিত রাখবেন বিনিয়োগ?

নয়াদিল্লি: করোনা আতঙ্কে জেরবার গোটা বিশ্ব৷ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফে ইতিমধ্যেই করোনাকে বিশ্বজুড়ে মহামারী ঘোষণা করা হয়েছে৷ করোনাকে মহামারী বলে ঘোষণা হতেই মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারতীয় শেয়ার বাজার৷ আজ বাজার খোলার পর থেকে এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ৩ হাজার পয়েন্ট পড়ে সেন্সেক্স৷ দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৩২ হাজারের কাছাকাছি৷ ৯০০ পয়েন্ট পড়ে গিয়েছে নিফটি৷ ডলারের তুলনায় টাকার দাম হু হু করে নিচে নেমেছে৷ এই মুহূর্তে টাকার দাম দাঁড়িয়েছে ৭৪ টাকা ৫০ পয়সা৷ কিন্তু এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে কীভাবে নিজের বিনিয়োগ সুরক্ষিত রাখবেন? কী বলছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা?

অর্থনীতিবিদ অভিরূপ সরকার সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, করোনা আতঙ্ক গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে৷ আর তার জেলে সাধারণ অর্থনীতির কাজকর্ম ভীষণভাবে ব্যাহত হয়েছে৷ জিনিসপত্র যদি আমরা ঠিকভাবে না বিক্রি করতে পারি, তাহলে লাভ বা মুনাফা হবে না৷ আর সেটা যদি কমে যায় তাহলে শেয়ারের দামও কমে যাবে৷ অর্থাৎ সংস্থাগুলি লাভ কমে গিয়েছে৷ আর এর জেরে শেয়ারের দামও কমে গিয়েছে৷ লোকে শেয়ারের বিকল্প ব্যবস্থার দিকে ঝুঁকছে৷ কমিউনিটির দিকে বেশি করে বিনিয়োগের দিকে ঝুঁকছে বাজার৷ সোনা থেকে শুরু করে ডলারের উপর বিনিয়োগ বাড়ছে৷ কিন্তু শেয়ারের দাম পড়ছে বলে ভারতীয় অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তা নয়৷ অর্থনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলেই শেয়ারের দাম পড়ছে৷ এখন শেয়ারবাজারে যদি কম টাকা ঢোকে, বিদেশীরা যদি কম লগ্নি করেন, তাহলে বলাইবাহুল্য এই শূন্যতা কখনো পূরণ করা যাবে না৷

আর এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে যেহেতু শেয়ারের দাম লাগাতার পড়ছে, ফলে স্বল্প মেয়াদী ভিত্তিতে লগ্নি কিছুটা করা যেতে পারে বলে মত প্রকাশ করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা৷ কারণ নিচের দিক থেকে কোন শেয়ার কম দামে কিনে রাখা এখন বেশ যুক্তিযুক্ত বলে মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা৷ মূলত মিডক্যাপের ওপর গুরুত্ব বাড়ানোর বিষয়েও বলছেন অনেকে৷ সে ক্ষেত্রে আইটিসি কিংবা পরিষেবা দেওয়া বিভিন্ন সংস্থায় লগ্নি করার বিষয়েও কল দিচ্ছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা৷

Around The Web

Trending News

You May like