Aajbikel

টিকটক পরিচালনার ভার নিতে পারে রিলায়েন্স! চলছে আলোচনা?

নয়াদিল্লি: মাস খানেক হল চিনা অ্যাপ টিকটক অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। এবার সেই টিকটকই কিনতে চলেছে রিলায়েন্স। এমনই তথ্য সম্প্রতি সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে এ নিয়ে রিলায়েন্স ও টিকটকের কোম্পানি বাইট ডান্সের মধ্যে কথাবার্তাও চলছে। জুলাই মাসে তাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে টিকটক, বাইট ডান্স এবং রিলায়েন্স, কেউই মুখ খোলেনি।
 | 
টিকটক পরিচালনার ভার নিতে পারে রিলায়েন্স! চলছে আলোচনা?

নয়াদিল্লি: মাস খানেক হল চিনা অ্যাপ টিকটক অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। এবার সেই টিকটকই কিনতে চলেছে রিলায়েন্স। এমনই তথ্য সম্প্রতি সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে এ নিয়ে রিলায়েন্স ও টিকটকের কোম্পানি বাইট ডান্সের মধ্যে কথাবার্তাও চলছে। জুলাই মাসে তাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে খবর। কিন্তু এখনও পর্যন্ত এ নিয়ে টিকটক, বাইট ডান্স এবং রিলায়েন্স, কেউই মুখ খোলেনি।

ভারতে অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিল টিকটক। কিন্তু লাদাখ ইস্যুর পর মোট ৫৯টি চিন অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে ভারত। দেশের নিরাপত্তার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়। টিকটক, ইউসি ব্রাউজার, শেয়ার ইটের মতো ৫৯টি চিনা অ্যাপ দেশের সার্বভৌমত্ব, সংহতি, প্রতিরক্ষা, দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিপজ্জনক বলে মন্তব্য করা হয়। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা জারির পরে টিকটক নিজেদের ভারতীয় প্রমাণ করতে উঠে পড়ে লাগে। করোনা পরিস্থিতিতে কেন্দ্র সরকারকে যে অর্থ সাহায্য করা হয়েছিল, সেই কথাও তোলে তারা। টিকটকের মালিক কোম্পানি বাইট ডান্স দাবি করে ভারতীয় সুরক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় আইন মেনেই অ্যাপ চালায় তারা। ভারতীয়দের কোনও তথ্যই যে তারা চিনে পাঠায়, এমন নয়। তবে তাতে নয়াদিল্লি সিদ্ধান্ত বদল করেনি।

আরও পড়ুন: দেশীয় অ্যাপের খোঁজে আত্মনির্ভর ভারত! শীর্ষে টিকটকের বিকল্প চিঙ্গারি

ভারতে টিকটক অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি অ্যাপ। এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ২০ কোটি। ভারতে এর বেশ কিছু কর্মীও রয়েছেন। তার সংখ্যাও খুব একটা কম নয়। প্রায় ২ হাজার। যদিও অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা জারির পরও কর্মীদের চাকরিতে কোনও ছাঁটাই হবে না জানায় বাইট ডান্স ও টিকটক। তবে কি রিলায়েন্সের সঙ্গে হাত মেলাতে চলেছে এই সংস্থা? কারণ ইতিমধ্যেই আমেরিকায় টিকটক বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই সংস্থার সঙ্গে সবরকম আর্থিক লেনদেন বন্ধেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। তবে এই দেশে টিকটক পরিচালনার ভার নিতে চাওয়া ইচ্ছা প্রকাশ করেছে মাইক্রোসফট। সংস্থার সিইও সত্য নাদেল্লা জানিয়েছেন, টিকটক পরিচালনার ভার নিতে চান তাঁরা। এখন যদি টিকটকের পরিচালনার ভার মাইক্রোসফটকে দেয় মার্কিন প্রশাসন তবে এদেশেও তার সম্ভাবনা থেকেই যাচ্ছে।

Around The Web

Trending News

You May like