Aajbikel

কেন্দ্রকে ৫৭ হাজার কোটি টাকার সাহায্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত রিজার্ভ ব্যাঙ্কের

নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে দেশের অবস্থা বেশ খারাপ। এর মধ্যে পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্র সরকারকে ৫৭ হাজার কোটি টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বা RBI।  শুক্রবার একটি বৈঠকের পর এই কথা ঘোষণা করা হয়। বৈঠকটির নেতৃত্ব দিয়েছিল গভর্নর শক্তিকান্ত দাস।
 | 
কেন্দ্রকে ৫৭ হাজার কোটি টাকার সাহায্য দেওয়ার সিদ্ধান্ত রিজার্ভ ব্যাঙ্কের
 

নয়াদিল্লি: করোনা পরিস্থিতিতে দেশের অবস্থা বেশ খারাপ। এর মধ্যে পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্র সরকারকে ৫৭ হাজার কোটি টাকা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বা RBI।  শুক্রবার একটি বৈঠকের পর এই কথা ঘোষণা করা হয়। বৈঠকটির নেতৃত্ব দিয়েছিল গভর্নর শক্তিকান্ত দাস।

আরও পড়ুন: গালওয়ানে শহিদদের শ্রদ্ধা জানিয়ে শত্রুদের জবাব দেওয়ার বার্তা রাষ্ট্রপতির

করোনার মধ্যে বিভিন্ন কাজে কেন্দ্রীয় সরকার এগিয়ে এসেছে। ফলে কোষাগারেও পড়েছে টান। ফলে আগামী আর্থিক বর্ষে বাজেট ঘাটতি হতে পারে। একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে কেন্দ্রের আয় ও ব্যয়ের মধ্যে কমবেশি ১০ লক্ষ কোটি টাকার পার্থক্য থাকতে পারে। ইতিমধ্যেই বাজারে মূল্যবৃদ্ধি থাবা বসিয়েছে। কিন্তু আয় ও ব্যায়ের মধ্যে পার্থক্যের ফলে আরও মূল্যবৃদ্ধির সম্ভাবনা বাড়ছে। এমন পরিস্থিতে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের এই সিদ্ধান্ত অনেকটাই স্বস্তিদায়ক। আরবিআই ঘোষণা করেছে ডিভিডেন্ড ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে সরকারকে ৫৭ হাজার কোটি টাকা দেবে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। তবে কেন্দ্রকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের অর্থ সাহা্য্যের ঘটনা নতুন নয়। এর আগে ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষেও কেন্দ্রকে ২৮ হাজার কোটি টাকা দিয়েছিল তারা। 

আরও পড়ুন: ফের সইফ-করিনার সংসারে সুখবর, সেলেব মহলে বাড়ছে দ্বিতীয় সন্তানের প্রবণতা?

কিছু কিছু সংস্থা তাদের লভ্যাংশ থেকে সংস্থার শেয়ার হোল্ডারদের একটি অংশ দেয়৷ একেই বলে ডিভিডেন্ড। রিজার্ভ ব্যাঙ্কও তাদের লভ্যাংশের টাকা থেকে খানিকটা কেন্দ্রীয় সরকারকে দেয়। ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষের হিসাব বলছে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কাছে প্রায় ৯ লক্ষ ৬০ হাজার কোটি টাকা রয়েছে। চারটি অ্যাকাউন্টে রয়েছে এই টাকা৷ তার মধ্যে টাকা যেমন রয়েছে, তেমনই রয়েছে সোনা৷ গত বছর আগস্টে তারা কেন্দ্রকে ১ লক্ষ ৭৬ হাজার কোটি টাকা দিতে চেয়েছিল। যদিও এ নিয়ে বিস্তর বিতর্ক হয়েছিল।

Around The Web

Trending News

You May like