×

সঞ্চয় করছেন, কিন্তু সঠিক রাস্তায় তো? এই পাঁচ অভ্যাস কিন্তু জরুরি

 
সঞ্চয়

কলকাতা: মাস গেলে রোজগার তো প্রায় সকলেই করেন৷ কেউ কম, কেউ একটু বেশি৷ কিন্তু দেখা যায় মাসের শেষে পর্যাপ্ত আয় করা ব্যক্তিটিও ঠিক পথে খরচ করতে পারছেন না৷ কারণ, উপার্জন করা আর উপার্জিত টাকা সঠিক পথে খরচ করা মোটেই এক বিষয় নয়৷ মাস গেলে যা উপার্জন হয়, তা দিয়ে সংসার চালিয়ে ভবিষ্যতের সংস্থান করাটাই বহু মানুষের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। কারণ আমরা অনেকেই ভুলে যাই খরচ সামলানোটাও কিন্তু শেখার বিষয়। সেই কারণেই অনেক সময় দেখা যায় নির্দিষ্ট দায়িদায়িত্ব ও নির্দিষ্ট আয় সত্ত্বেও কেউ কেউ সংসার সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন৷ কেউ আবার বেশ সুন্দর ভাবেই সামলাচ্ছেন সব কিছু৷ কিন্তু কোথায় ভুলটা হচ্ছে? দেখে নেওয়া যাক-

•     নিয়মিত রোজগার
আপনি যদি জেনে থাকেন সামনের মাসে বা আগামী দিন কতটা উপার্জন করবেন, তাহলে বলা যায় আপনি প্রথম চ্যালেঞ্জটা পার করে ফেলেছেন। নিজের আয়ের মধ্যে খরচকে বেঁধে ফেলাটাই হল আপনার দ্বিতীয় চ্যালেঞ্জ।

 

 

 

আরও পড়ুন- গত ৬ মাসে সর্বোচ্চ, সোনার দাম 'আকাশছোঁয়া'

 

 

 

•      ভবিষ্যতের কথা মাথায় রাখা

 উপার্জিত টাকা খরচ করার আগেই ভাবতে হবে সঞ্চয়ের কথা। কী ভাবে তা করবেন, সেটাই হল কৌশল। সঞ্চয় করার অর্থ জীবন বিমা বা ব্যাঙ্কের আমানতে মোটা টাকা ঢালা নয়। হয়তো আপনি এখন একটা গাড়ি কিনতে চাইছেন, কিংবা বানাবেন বাড়ি, এছাড়াও  সন্তানের উচ্চশিক্ষাও আছে৷ আছে অসুস্থতার খরচ৷ এছাড়া অবসরের কথাও তো ভাবতে হবে৷ আর প্রত্যেকটির জন্য আপনাকে আলাদা আলাদা ভাবে সঞ্চয় করতে হবে৷ কিছু চাহিদা পূরণে যেমন বিমার প্রয়োজন, তেমনই কিছুর জন্য প্রয়োজন চট জলদি সঞ্চয় ভাঙিয়ে নেওয়ার সুবিধা। কী ভাবে সঞ্চয় করবেন, সেই হিসাব মেলানোটাই দক্ষতা৷ আর এখানেই তৈরি হয় ফারাক৷ সঞ্চয়ের সঠিক পথ খুঁজতে বেছে নিন এক জন সঠিক সঞ্চয় উপদেষ্টাকে। তাহলেই কেল্লাফতে৷ এখনও যদি তা না করে থাকেন, তা হলে আর দেরি নয়। 


•    বিল দেওয়া
প্রতি মাসে বিল তো মেটাতেই হয়৷ তাহলে দেরি কেন? বিল সময় মতো মিটিয়ে দেওয়াটাই উচিত৷ তাহলে আর কোনও রকম ঋণ হয় না৷ প্রতি মাসে আবাসন, খাদ্য, পরিবহণ, ইএমআই-সহ যে সকল গুরুত্বপূর্ণ চাহিদাগুলি রয়েছে তা মিটিয়ে ফেললে আজকের দায় ভবিষ্যতের উপর বর্তায় না৷ এতে সমস্যা অনেক কম হয়৷ 

 

•     অবসর পরিকল্পনা
প্রথম পারিশ্রমিক হাতে পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই অবসরের পরিকল্পনা শুরু করে দেওয়া উচিত৷ যদি প্রথম থেকেই আপনি অবসরের পরিকল্পনা করেন এবং উপার্জনের একটি অংশ ওই খাতে সরিয়ে রাখেন তা হলে বুঝতে হবে অর্থ পরিচালনার ক্ষেত্রে সঠিক পদক্ষেপ করেছেন৷ 


•     কোনও ক্রেডিট কার্ড ঋণ নেই
আজকাল বহু মানুষই ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে থাকেন। এর ব্যবহারের উপকারিতা-অপকারিতা নিয়ে বিতর্ক চিরকালীন। ব্যবহারকারীর একাংশ ভালো ভাবেই জানেন, কী ভাবে এর সর্বোচ্চ সুবিধা নিতে হয়। তবে আপনি যদি ক্রেডিট কার্ডে ঋণ নেওয়া থেকে দূরে থাকতে পারেন, তা হলে অবশ্যই অর্থ ব্যবস্থাপনায় দক্ষতা রয়েছে আপনার।


 

From around the web

Education

Headlines