Aajbikel

ব্যাঙ্ক থেকে বিমা, আজ থেকে চালু হচ্ছে এই ৮টি নিয়ম! প্রভাব পড়বে পকেটেও

১ অক্টোবর থেকে আপনার জীবনে ৮ টি বড় পরিবর্তন আসবে। এই নতুন মাস থেকে উৎসব মরসুম শুরু হবে। এর পাশাপাশি সরকার করোনারি পিরিয়ডে ৫.০ আনলক ঘোষণা করবে। এবার যে পরিবর্তনগুলি ঘটতে চলেছে তার মধ্যে এয়ার ট্র্যাফিক, মিষ্টি, গ্যাস সিলিন্ডার এবং স্বাস্থ্য বিমা সহ অনেক কিছুই রয়েছে, যা আপনার জীবনেও প্রভাব ফেলবে।
 | 
ব্যাঙ্ক থেকে বিমা, আজ থেকে চালু হচ্ছে এই ৮টি নিয়ম! প্রভাব পড়বে পকেটেও


নয়াদিল্লি: আজ পয়লা অক্টোবর থেকে আপনার জীবনে ৮ টি বড় পরিবর্তন কার্যকর হচ্ছে৷ এই নতুন মাস থেকে উৎসব মরসুম শুরু হবে। এর পাশাপাশি সরকার করোনারি পিরিয়ডে ৫.০ আনলক ঘোষণা৷ এবার যে পরিবর্তনগুলি ঘটতে চলেছে তার মধ্যে এয়ার ট্র্যাফিক, মিষ্টি, গ্যাস সিলিন্ডার এবং স্বাস্থ্য বিমা সহ অনেক কিছুই রয়েছে, যা আপনার জীবনেও প্রভাব ফেলবে।

১. এলপিজি সিলিন্ডারের দাম:  প্রথমে রান্নাঘর দিয়ে শুরু করা যাক। তেল বিপণন সংস্থাগুলি প্রতি মাসের প্রথম তারিখে এলপিজি সিলিন্ডার এবং বায়ু জ্বালানীর নতুন দাম ঘোষণা করে। গত কয়েক মাস ধরে দামগুলিতে প্রচুর ওঠানামা চলছে। এলপিজির দামও বাড়তে বা হ্রাস হতে পারে ১ অক্টোবর। এজন্য আপনাকে মানসিক ও আর্থিকভাবে প্রস্তুত থাকতে হবে।

২. দিল্লিতে উচ্চ সুরক্ষা নম্বর প্লেট প্রয়োজন:  দিল্লিতে ১ অক্টোবর থেকে গাড়িগুলিতে উচ্চ সুরক্ষা নম্বর প্লেট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ২০১৯ সালের এপ্রিলের আগের যানবাহনের জন্য, গাড়িতে এই নম্বর প্লেট থাকা জরুরি। প্লেটের অনুপস্থিতিতে এক থেকে পাঁচ হাজার টাকার চালান নেওয়া হবে।

৩. ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং ই-চালান সংক্রান্ত বিধি পরিবর্তন হবে:  কেন্দ্রীয় সরকার মোটরযান আইন ১৯৮৯ সংশোধন করেছে। সরকার বলেছে যে ড্রাইভিং লাইসেন্স এবং ই-চালান সহ গাড়ির নথিগুলি ২০২০ সালের ১ অক্টোবর একটি তথ্য প্রযুক্তি পোর্টালের মাধ্যমে রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে। একটি বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে গাড়ির নথিগুলির পরিদর্শনকালে বৈদ্যুতিন মাধ্যমে বৈধ পাওয়া যানবাহনের নথিপত্রের পরিবর্তে শারীরিক নথির দাবি করা হবে না।

৪. গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ব্যবহারে চালান:  নতুন নিয়ম অনুসারে, ড্রাইভিং চলাকালীন হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি কেবল রুট নেভিগেশনের জন্য এমনভাবে ব্যবহার করা হবে যাতে চালক গাড়ি চালানোর সময় বিভ্রান্ত না হয়। তবে গাড়ি চালানোর সময় মোবাইলে কথা বলার জন্য এক হাজার থেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা যেতে পারে। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রণালয় এই নতুন নিয়মটি অবহিত করেছে।

৫. দিল্লিতে GoAir বিমানের টার্মিনাল পরিবর্তন করা হবে:  পয়লা অক্টোবর থেকে, দিল্লি যেতে যাওয়া GoAir এয়ারলাইন্সে এবং যাওয়ার ফ্লাইটগুলি এখন টার্মিনাল-২ থেকে পরিচালিত হবে। যে কোনও ধরনের অসুবিধা এড়াতে বিমান সংস্থাটি যাত্রীদের জন্য বিশেষ ফোন নম্বর এবং পরামর্শ প্রদান করেছে। GoAir যাত্রীদের বাড়ি ছাড়ার আগে তাঁদের ফ্লাইট এবং টার্মিনাল পরীক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছে। আরও তথ্যের জন্য, আপনি GoAir কাস্টমার কেয়ার নাম্বারে 1800 2100 999 এবং +91 22 6273 2111 নম্বরে কল করে বিশদ নিতে পারেন।

৬. মিষ্টির দোকানগুলি কেবলমাত্র তাজা মিষ্টি বিক্রি করতে হবে:  মিষ্টির দোকানগুলি এখন থেকে আপনাকে বাসি মিষ্টি বিক্রি করতে পারবে না। কেন্দ্রীয় সরকার ২১ অক্টোবর থেকে নতুন আইন প্রয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর অধীনে, মিষ্টি বিক্রি করা দোকানিদের তাদের সমস্ত পণ্যগুলিতে একটি মেয়াদোত্তীকরণের তারিখ লাগাতে হবে। ভারতের ফুড সেফটি অ্যান্ড স্ট্যান্ডার্ডস অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (FSSAI) নতুন নিয়মের আওতায় দোকানগুলির মিষ্টির উপর 'হালওয়াইয়ের আগে বেস্ট' লেখা বাধ্যতামূলক হবে। অর্থ, যে সময়ের মধ্যে মিষ্টিটি ভোজ্য হবে, তার তারিখটি এখন ডেজার্ট প্লেটে লিখতে হবে। তবে, প্লেটে মিষ্টি তৈরির তারিখটি লেখা বাধ্যতামূলক হবে না, কারণ FSSAI এটিকে ঐচ্ছিক রেখেছে।

৭. স্বাস্থ্য বিমার অধীনে আরও বেশি সুবিধা পাওয়া যাবে:  বিমা নিয়ন্ত্রক IRDAI-এর বিধি অনুসারে স্বাস্থ্য বিমা নীতিতে একটি বড় পরিবর্তন ঘটতে চলেছে। ১ অক্টোবর থেকে সমস্ত বিদ্যমান এবং নতুন স্বাস্থ্য বিমা নীতিমালার আওতায় আরও কিছু রোগকে নথিভুক্ত করা হয়েছে। একটি অর্থনৈতিক হারে এটি পাওয়া যাবে। স্বাস্থ্য বিমা নীতিটিকে মানকৃত এবং গ্রাহককেন্দ্রিক করার জন্য এই পরিবর্তন করা হচ্ছে। এটিতে আরও অনেক পরিবর্তন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

৮. বিদেশে টাকা পাঠানো ব্যয়বহুল হবে:  বিদেশে টাকা পাঠানোর ক্ষেত্রে কর আদায়ের বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার একটি নতুন বিধি তৈরি করেছে। এই বিধিগুলি কার্যকর হবে ২০২০ সালের ১ অক্টোবর থেকে। এমন পরিস্থিতিতে যদি আপনি বিদেশে অধ্যয়নরত আপনার সন্তানের কাছে অর্থ প্রেরণ করেন বা কোনও আত্মীয়কে আর্থিকভাবে সহায়তা করেন তবে আপনাকে এই পরিমাণের উপর উৎস (TCS) সংগ্রহ করা অতিরিক্ত ৫% কর দিতে হবে। ফিনান্স অ্যাক্ট ২০২০ অনুসারে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের (RBI) লিবারালাইজড রেমিট্যান্স স্কিমের (LRS) আওতায় বিদেশী অর্থ প্রেরণকারীকে টিসিএস দিতে হবে।

Around The Web

Trending News

You May like