Aajbikel

ব্যাঙ্কিং আইন সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি

 | 
ব্যাঙ্ক

নয়াদিল্লি: সংসদের চলতি শীতকালীন অধিবেশনেই কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যাঙ্কিং আইন সংশোধনী বিল পেশ করার কথা রয়েছে। বিলটি সংসদে পাশ হয়ে আইনে পরিণত হওয়া মানেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণের পথ আরও সুগম করা। এই বিলের প্রতিবাদে এবার আন্দোলনের পথকেই হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছে ব্যাঙ্ক কর্মী সংগঠনগুলি। সংগঠনগুলোর তরফে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে দু’ দিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।


আগামী ১৬ ও ১৭ ডিসেম্বর দেশজুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘট পালিত হতে পারে বলে দ্য ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নসের তরফে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ এই ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নস ন’টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের কর্মী সংগঠনের সম্মিলিত মঞ্চ হিসেবে গঠিত হয়েছে। উল্লেখ্য, এই বছর ফেব্রুয়ারি মাসে বাজেট পেশের সময়ই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমনের কথাতেই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বেসরকারি হাতে দেওয়ার পরিকল্পনার বিষয়টি স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। তিনি সেসময় দু’টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বেসরকারিকরণ করার কথা জানিয়েছিলেন। সেই মতো সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে ব্যাঙ্কিং ১৯৭০ এবং ১৯৮০ সালের ব্যাঙ্ক জাতীয়করণ আইন এবং ১৯৪৯ সালের ব্যাঙ্কিং নিয়ন্ত্রণ আইনে সংশোধন করার কথা রয়েছে কেন্দ্রের। এই পরিস্থিতিতে সরকারের এই বিল পেশের প্রতিবাদে টানা দু’ দিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশেনের তরফে জানানো হয়েছে।


প্রসঙ্গত, চলতি অর্থবর্ষে বিলগ্নিকরণের মাধ্যমে ১.৭৫ লক্ষ কোটি টাকা তোলার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রীয় তরফে। তখন দু’টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের বিলগ্নিকরণের কথা জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তবে দু’টি ব্যাঙ্কের নাম জানাননি তিনি। কেন্দ্রের তরফে যুক্তি দেওয়া হয়েছে, একসময় বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলিকেই জোর করে রাষ্ট্রায়ত্ত করা হয়েছিল। পাশাপাশি একসঙ্গে এতগুলি ব্যাঙ্ক আর নিজের হাতে রাখতে চাইছে না কেন্দ্র, এমনটাই মত অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের৷  

Around The Web

Trending News

You May like