Aajbikel

ইতিবাচক উলটপুরাণ! ডিভিডেন্ড দিচ্ছে অধিকাংশ সরকারি ব্যাঙ্ক, SBI একাই দেবে ৩৬০০ কোটি

 | 
ব্যাঙ্ক

নয়াদিল্লি:  ব্যাঙ্কিং দুনিয়া উলটপুরাণ৷ ছয় বছর পর ঘুরছে চাকা৷ মুনাফা করছে সরকারি ব্যাঙ্কগুলি৷ সরকারকে ডিভিডেন্ডও দিচ্ছে তারা। এই ইতিবাচক পটপরিবর্তন সত্ত্বেও ব্যাঙ্কিং মহলের আশঙ্কা, ব্যাঙ্ক বেসরকারিকরণের পথ থেকে সরে আসবে না মোদী সরকার৷ 

আরও পড়ুন- একদিনের জন্য বিনামূল্যে হোটেলে রুম দিচ্ছে OYO, জেনে নিন শর্ত

অথচ প্রায় ৬ বছর পর সিংহভাগ সরকারি ব্যাঙ্ক সরকারকে ডিভিডেন্ড দিতে সক্ষম হয়েছে। সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক ছাড়া কমবেশি সব রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কই মুনাফা করছে এবং সরকারকে ডিভিডেন্ড দিচ্ছে। সব মিলিয়ে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ডিভিডেন্ড পেতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া একাই দেবে ৩৬০০ কোটি টাকা৷  


এই ইতিবাচক পরিস্থিতির মধ্যেও ব্যাঙ্ক বেসরকারিকরণ নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে৷  সরকারি ব্যাঙ্কের সংখ্যা কমাতে কমাতে ১২ তে ঠেকেছে। সংযুক্তিকরণের মাধ্যমে সংখ্যা কমিয়ে আনা হয়েছে। আগামীদিনে তা আরও কমানো হবে বলে ইঙ্গিত মিলেছে৷ নতুন করে বেশ কিছু ব্যাঙ্ক সংযুক্ত করা হবে বলে ঠিক করেছে কেন্দ্রের সরকার৷ কিছু ব্যাঙ্ক বিক্রিও করেও দেওয়া হতে পারে। সম্প্রতি সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কের ৬০০টি শাখা বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ 


সরকার এখন আগ্রহী ডিজিটাল ব্যাঙ্কিংয়ে৷ ৭৫টি ডিজিট্যাল ব্যাঙ্ক প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। কয়েকটি ব্যাঙ্ক বাদে আগামীদিনে সবকটি ব্যাঙ্ক বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। এরই মধ্যে স্টেট ব্যাঙ্ক থেকে ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক, প্রায় সবকটি সরকারি ব্যাঙ্কই মুনাফার মুখ দেখেছে৷ স্টেট ব্যাঙ্ক একাই সরকারকে ৩৬০০ কোটি টাকা ডিভিডেন্ড দিচ্ছে। ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক দেবে ১১০০ কোটি টাকা। কানাড়া ব্যাঙ্ক দেবে ৭৪২ কোটি টাকা। ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক ও ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া ডিভিডেন্ট দিচ্ছে ৬০০ কোটি টাকা। কত টাকা ডিভিডেন্ড দেওয়া হবে এখনও ঘোষণা করেনি ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্ক ও আইডিবিআই। উল্লেখ্য, এই দুটি ব্যাঙ্ককেই বেসরকারিকরণের তালিকায় রাখা হয়েছে। 

২০১৬ সাল থেকে অধিকাংশ সরকারি ব্যাঙ্কই সরকারকে ডিভিডেন্ড দেওয়া বন্ধ করে দেয়। এই পরিস্থিতিতে ব্যাঙ্কগুলিকে আর্থিকভাবে শক্তিশালী করতে রাজকোষ থেকে টাকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র। পরে একে একে তা বিক্রি করার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু এখন পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক৷ ব্যাঙ্কগুলি মুনাফা পাচ্ছে৷ তাই নতুন করে প্রশ্ন উঠছে, মোদী সরকার সরকারি ব্যাঙ্কগুলির কী ভবিষ্যৎ লিখবে? 
 

Around The Web

Trending News

You May like