×

সরকারের প্রতি আস্থা আছে, ৩৭ দিনের ধর্না তুলে নিলেন এঁরা

 
2009_jobs

কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে অভিযোগ কিছু কমে নেই রাজ্যে এবং নিয়োগের দাবিতে ধর্নাও কিছু কম হচ্ছে না। এরই মাঝে অন্য খবর। ৩৭ দিন ধরে চাকরির দাবিতে গান্ধী মূর্তির পাদদেশে ধর্নায় যারা ছিলেন তারা ধর্না প্রত্যাহার করেছেন। কিন্তু কারা ছিলেন সেখানে? আসলে ওই স্থানে ধর্নায় বসেছিলেন ২০০৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা। তবে তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষের প্রতিশ্রুতি পেয়ে তারা ধর্না তুলে নিয়েছেন বলে খবর।

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গের গর্বের জায়গাটা ফিরিয়ে আনতে হবে: বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

২০০৯ সালের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের দাবি ছিল, আদালতে তাঁদের মামলাটির দ্রুত শুনানি হোক এবং শীঘ্রই রাজ্য সরকার তাঁদের দাবির দিকে নজর দিকে। এই অবস্থায় সোমবার তৃণমূল কংগ্রেস মুখপাত্র কুণাল ঘোষ তাঁদের নিয়োগের আশ্বাস দেন এবং আগামী বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের বেঞ্চে এই মামলার শুনানিও হতে চলেছে বলে জানা গিয়েছে। সেই প্রেক্ষিতেই তারা সকলে ধর্না প্রত্যাহার করেছেন। আন্দোলনকারীদের বক্তব্য, সরকারের প্রতি তাঁদের পূর্ণ আস্থা আছে। আর মামলা যেহেতু আদালতে শুনানি হচ্ছে তাই তারা ধর্না প্রত্যাহার করছেন।

বিষয় হল, ২০০৯ সালে প্রাথমিকে চাকরির ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক ছিল না। তবে যারা যারা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ছিলেন, তাঁদের দাবি ছিল আগে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের চাকরি দেওয়া হোক। সেই মর্মে মামলা হয়েছিল যার নিষ্পত্তি এখনও হয়নি। আগামী বৃহস্পতিবার ফের এই মামলার শুনানি। তবে চাকরিপ্রার্থীদের কথায়, আর তারা ধর্না দেবেন না, কারণ রায় যাই হোক, কেউ না কেউ চাকরি পাবে। এছাড়া মধ্যশিক্ষা পর্ষদ থেকেও তারা আশ্বাস পেয়েছেন।   

From around the web

Education

Headlines