×

কলকাতা হাইকোর্টে বিশৃঙ্খলা, প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া! সাসপেন্ডের কোপের মুখে বিদ্রোহীরা?

 
হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি:  কলকাতা হাইকোর্টে বিশৃঙ্খলার  আঁচ এবার ছড়িয়ে পড়ল দিল্লিতে। হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার এজলাসের বাইরে যেভাবে নজিরবিহীন বিক্ষোভ দেখিয়েছেন একদল আইনজীবী, তাতে ক্ষুব্ধ বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া। যারা বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন তাঁরা সকলেই তৃণমূল পন্থী আইনজীবী, এমনটাই অভিযোগ উঠেছে। যদিও রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল স্পষ্ট জানিয়েছে তারা এসবের সঙ্গে যুক্ত নয়। তবে গোটা ঘটনা যেভাবে ঘটেছে তার ভিত্তিতে এবার কড়া অবস্থান নিল বার কাউন্সিল অব ইন্ডিয়া। সেদিনের ঘটনা খতিয়ে দেখার জন্য তিন সদস্যের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিটি পশ্চিমবঙ্গে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইনজীবীদের সর্বোচ্চ সংগঠন বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া।

কাউন্সিলের স্পষ্ট বক্তব্য, "এই ঘটনা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। যেভাবে বিচারপতি মান্থার এজলাসের সামনে ক্রমাগত স্লোগানিং এবং পোস্টারের  মাধ্যমে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হয়েছে, তা সমস্ত রকম শালীনতার সীমা পেরিয়ে গিয়েছে।" মঙ্গলবারের মধ্যে কমিটিকে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। ঘটনায় অভিযুক্ত আইনজীবীদের সাসপেন্ড করা হতে পারে বলে কাউন্সিল সূত্রে খবর। কি কারণে এমনটা মনে করা হচ্ছে? আইনজ্ঞ মহলের একাংশ জানাচ্ছেন অতীতে এমন ঘটনা ওড়িশায় ঘটেছিল। এরপর সেই ঘটনায় যুক্ত আইনজীবীদের সাসপেন্ড করা হয়েছিল। সেই পথে হেঁটেই কলকাতা হাইকোর্টে বেনজির বিক্ষোভ দেখানো আইনজীবীদের সাসপেন্ড করার বিষয়টি তাই উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে সুপ্রিম কোর্টের একদল আইনজীবী বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যানের হাতে কলকাতা হাইকোর্টের বিভিন্ন ব্যতিক্রমী ঘটনার একটি তালিকা তুলে দেন। সেখানে যেমন রয়েছে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে ঘটা বিভিন্ন অসংবেদনশীল পরিস্থিতির বিবরণ, তেমনই  বিচারপতি মান্থার ১৩ নম্বর কোর্ট রুমের সামনে ঘটা আইনজীবীদের বিক্ষোভের বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া পশ্চিমবঙ্গের বেশ কয়েকজন আইনজীবী বিষয়টি বার কাউন্সিলের নজরে এনেছেন। এরপরই বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া জানায় তারা পশ্চিমবঙ্গে প্রতিনিধি দল পাঠাচ্ছে। 

কলকাতা হাইকোর্টের ঘটনা নিয়ে ইতিমধ্যেই সোচ্চার হয়েছে বিরোধীরা। বিরোধীরা সেদিনের ঘটনায় যুক্তদের আইনজীবী না বলে তাঁদের কালো কোট পরা গুন্ডা বলে তোপ দাগছেন। বিরোধীদের অভিযোগ এভাবে বিচার ব্যবস্থা তৃণমূল নিজেদের নিয়ন্ত্রণের মধ্যে নিয়ে আসতে চাইছে। তবে বিরোধীদের এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে শাসক দল। এই ঘটনায় শাসক দল যুক্ত নয় বলে তৃণমূলের দাবি। বিষয়টিকে নিছকই হাইকোর্ট কেন্দ্রিক কোনও সমস্যা বলছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। এই পরিস্থিতিতে যেভাবে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার প্রতিনিধি দল রাজ্যে আসছে, তাতে নতুন করে রাজ্য ও কেন্দ্রের চাপানউতোর শুরু হবে বলে অনেকেই মনে করছেন। তাই কলকাতায় যে ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং কমিটি আসছে তাদের রিপোর্ট পাওয়ার পর যদি সত্যিই বেনজির বিক্ষোভ দেখানো আইনজীবীদের সাসপেন্ড করা হয়, তবে গোটা বিতর্ক নিঃসন্দেহে যে অন্য মাত্রা নেবে তা স্পষ্ট। তাই কমিটি এ বিষয়ে আগামী দিনে কি রিপোর্ট পেশ করে সেটাই দেখার।

From around the web

Education

Headlines