×

শপথে আসবে বলেছিলেন! টুইট করেই মমতাকে শুভেচ্ছা জানালেন মোদী 

 
শপথে আসবে বলেছিলেন! টুইট করেই মমতাকে শুভেচ্ছা জানালেন মোদী
 

কলকাতা: নির্বাচনী প্রচারের সময় একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছিলেন যে, বিজেপি সরকার গঠনে যাবার পর তিনি নিজে মুখ্যমন্ত্রীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসবেন। তবে সরকার গঠন হল এবং মুখ্যমন্ত্রীর শপথ নিলেন, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আর বাংলায় এলেন না, টুইট করেই শুভেচ্ছা জানালেন। কারণ না সরকার গড়তে পারল বিজেপি, না মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে পারলেন কোনো বিজেপি নেতা। তৃতীয়বারের জন্য সরকার গড়লে তৃণমূল কংগ্রেস এবং নবান্নে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন শুধুমাত্র এক লাইনের একটি টুইট করেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি শুধু লিখেছেন, "পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করার জন্য মমতা দিদিকে শুভেচ্ছা"। এদিন রাজভবনে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শপথ নেওয়ার পর তিনি প্রথমবার সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রথমেই করোনাভাইরাস পরিস্থিতির দিকে নজর দেওয়ার কথা বলেন এবং তিনি জানান এটাই তাঁর প্রথম কাজ হবে। তবে বাংলায় বিভিন্ন জায়গায় যে ভোট পরবর্তী হিংসা হচ্ছে সেই প্রেক্ষিতেও কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। মমতা একই সঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় আধিকারিকদের স্বপদে ফেরানোর ঘোষণা করেছেন।


 

কোভিড পরিস্থিতিতে আজ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান ছিল নেহাতই অনাড়ম্বর ও সংক্ষিপ্ত৷ ২০১১ বা ২০১৬ সালের সেই চমক আজকের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ছিল না৷ শপথগ্রহণের পর রাজ্যপালের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ উভয়েই হাতজোড় করে কথা বলেন৷ রাজ্যপালকে ফুলের তোড়া দিয়েও শুভেচ্ছা জানানো হয় দলের তরফে৷ সবশেষে জাতীয় সঙ্গীত দিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠান পর্ব৷  এর পর রাজভবনে উপস্থিত তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করেন রাজ্যপাল৷  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও প্রশান্ত কেশোরের সঙ্গেও কথা বলেন জগদীপ ধনকড়৷  তার চলে ফটো শেসন৷ 

From around the web

Education

Headlines