×

তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

 
মমতা
 

কলকাতা:  ইতিহাসকে সাক্ষী রেখে রাজভবনে তৃতীয়বাবের জন্য শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ দেশের প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে হ্যাট্রিকের নজির একমাত্র তৃণমূল সুপ্রিমোর ঝুলিতেই৷ এই কৃতিত্বের নজির নেই ছয় বার মুখ্যমন্ত্রীর মসনদে বসা জয়ললিতারও৷ আজ রাজভবনের থ্রোনরুমে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়৷ 

আরও পড়ুন- কালীঘাটে উৎসবের আমেজ, শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি রাজভবনে, ইতিহাসের সন্ধিক্ষণে বাংলা

কোভিড পরিস্থিতিতে আজ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান ছিল নেহাতই অনাড়ম্বর ও সংক্ষিপ্ত৷ ২০১১ বা ২০১৬ সালের সেই চমক আজকের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ছিল না৷ শপথগ্রহণের পর রাজ্যপালের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করতে দেখা যায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷ উভয়েই হাতজোড় করে কথা বলেন৷ রাজ্যপালকে ফুলের তোড়া দিয়েও শুভেচ্ছা জানানো হয় দলের তরফে৷ সবশেষে জাতীয় সঙ্গীত দিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠান পর্ব৷  এর পর রাজভবনে উপস্থিত তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করেন রাজ্যপাল৷  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও প্রশান্ত কেশোরের সঙ্গেও কথা বলেন জগদীপ ধনকড়৷  তার চলে ফটো শেসন৷ 

আরও পড়ুন- ইতিহাস লিখে আজ শপথ মমতার

আজকের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান ছিল সম্পূর্ণ ভিন্ন৷ এত সাদামাটা শপথগ্রহণ এর আগে হয়নি৷ এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  সুব্রত মুথোপাধ্যায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অরূপ বিশ্বাস, সুব্রত বক্সি, ফিরহাদ হাকিম সহ অন্যান্য নেতারা৷ দেখা গিয়েছে দেব ও শতাব্দী রায়কেও৷ এছাড়াও ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের অন্যতম কুশীলব প্রশান্ত কিশোর৷  এদিন আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, বিমান বসু, দিলীপ ঘোষকে৷ যদিও তাঁরা এদিন উপস্থিত ছিলেন না৷ আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল অধীর চৌধুরী, প্রদীপ ও আব্দুল মান্নানকেও৷ 

এদিকে কালীঘাটে সকাল থেকেই সাজোসাজো রব৷  হরিষ চ্যাটার্জী স্ট্রিট সেজে উঠেছে নীল সাদা বেলুনে৷ রয়েছে মমতার বড় বড় ফেক্স-ব্যানার৷ সে সঙ্গে রয়েছে খেলা হবে স্লোগান৷ রয়েছে ফুটবলও৷ বাজছে গান৷ সব মিলিয়ে উৎসবের আবহ হরিষ চ্যাটার্জী স্ট্রিটে৷ 

From around the web

Education

Headlines