Aajbikel

ঠিক কী হয়েছিল মমতার?কেন পড়ে গেলেন তিনি? পরিবারের সদস্যরাই বা দুর্ঘটনার সময় কোথায় ছিলেন?

 | 
মমতা

কলকাতা:  পিছন থেকে ধাক্কা লাগার কারণে মুখ থুবড়ে পড়ে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ চোট পান কপালে ও নাকে৷ কপালে গভীর ক্ষত হয়েছে তাঁর৷ গলগল করে রক্ত রেরিয়েছে৷ কালীঘাটের বাড়িতেই এই দুর্ঘটনাটি ঘটে৷ সন্ধে সাড়ে সাতটা নাগাদ তাঁকে নিয়ে আসা হয় হাসপাতালে৷ মুখ্যমন্ত্রী বাড়ি ফিরে যাওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে এসএসকেএমের ডিরেক্টর মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, মুখ্যমন্ত্রীর কপালে তিনটি এবং নাকে একটি সেলাই পড়েছে। এখন প্রশ্ন হল, মুখ্যমন্ত্রীকে কি কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে পিছন থেকে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়েছে? কীভাবে পড়ে গেলেন তিনি? তদন্তে কলকাতা পুলিশ। দুর্ঘটনার সময়ে নিরাপত্তারক্ষীরা কোথায় ছিলেন, উঠছে সেই প্রশ্নও।


সাধারণত ভিভিআইপি-দের ক্ষেত্রে এই ধরনের ঘটনা ঘটলে একটা প্রাথমিক অনুসন্ধান করা হয়ে থাকে৷ সেখানে দাঁড়িয়েই কলকাতা পুলিশের প্রথম জিজ্ঞাস্যই ছিল মুখ্যমন্ত্রী ঠিক কোথায় পড়ে গিয়েছিলেন? সেখানে এমন কিছু ছিল বা আছে, যাতে তিনি হোঁচট খেতে পারেন? এই সব প্রশ্নের উত্তর খোঁজার পাশাপাশি পুলিশ এটাও দেখছে দুর্ঘটনার সময়ে মুখ্যমন্ত্রী একা ছিলেন কিনা৷ নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁর থেকে কতটা দূরে ছিলেন? পরিবারের সদস্যরাই বা কত দূরে ছিলেন? কেন প্রাথমিক চিকিৎসা ছাড়াই মুখ্যমন্ত্রীকে এসএসকেএম-এ নিয়ে যাওয়া হল? তাও জানতে চাওয়া হয়েছে৷ সেটা কি মুখ্যমন্ত্রী কিংবা তাঁর পরিবারের সদস্যদের নির্দেশ? নাকি প্রাথমিক চিকিৎসার কোনও বন্দোবস্ত করা যায়নি? সবটাই অনুসন্ধান করে দেখা হচ্ছে৷ 


আসলে এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ পিছন থেকে ধাক্কা লাগার কথা বলতেই নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করে৷ পরে অবশ্য বিষয়টা স্পষ্ট করা হয়৷ মণিময় বন্দ্যোপাধ্যায় সংবাদমাধ্যমকে বলেন, কেউ ওঁকে শারীরিক ধাক্কা মেরেছে সেটা নয়, এর অর্থ সেইসময় মুখ্যমন্ত্রীর অনুভব ছিল কেউ যেন তাঁকে ধাক্কা মেরেছেন। তাঁর সেরিব্রাল কনকাশন ছিল (অর্থাৎ মস্তিষ্কে আঘাতের ফলে ব্যাথা)। সিটি স্ক্যানের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ না হলেও, প্রবল ঝাঁকুনি (কনকাশন) হয়েছে।

Around The Web

Trending News

You May like