×

চাকরি চাইতে এসে বিপাকে প্রীতি, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

 
অভিজিৎ

কলকাতা:  আদালতে চাকরির দাবি নিয়ে এসেছিলেন তিনি৷ কিন্তু, নিজেই জরিমানার মুখে পড়লেন ওই চাকরিপ্রার্থী! রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর থেকে বহু চাকরিপ্রার্থী কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন৷ তাঁদের সকলেরই দাবি ছিল, যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তাঁরা বঞ্চিত৷ এর পর আদালতের নির্দেশে চাকরি পান ববিতা সরকার, প্রিয়াঙ্কা সাউয়ের মতো চাকরিপ্রার্থীরা৷ কিন্তু শুক্রবার চাকরির দাবি নিয়ে উচ্চ আদালতের দরজায় কড়া নেড়ে বিপদে পড়লেন জলপাইগুড়ির চাকরিপ্রার্থী প্রীতি।

আরও পড়ুন- দক্ষিণেশ্বরে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি, জখন এক সিভিক ভলেন্টিয়ার


শুক্রবার বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে মামলার শুনানি চলছিল। সেই সময় জলপাইগুড়ির বাসিন্দা প্রীতি নার্জিনারি দাবি করেন, প্রিয়াঙ্কার সাউয়ের চাকরির প্রকৃত দাবিদার তিনি। ‘ন্যায্য’ চাকরির দাবি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন৷ এদিকে, দীর্ঘ শুনানির পর বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় প্রিয়াঙ্কাকে চাকরি দিয়েছিলেন।আদালতের নির্দেশে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ তাঁকে নিয়োগপত্রও দেয়৷ তিনি চাকরিও করছেন৷

 
 

কিন্তু, প্রিয়াঙ্কা চাকরি পাওয়ার পর প্রীতি বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে দাবি করেন ওই চাকরির আসল দাবিদার তিনি। কিন্তু বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় তাঁর সেই আবেদন শোনেননি। তিনি আদালতে আবেদন করতে বলেছিলেন। শুক্রবার ফের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে চাকরির দাবি জানান প্রীতি৷ তাঁর দাবি শুনে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হন বিচারপতি। মামলা তো শুনলেনই না, উল্টে তাঁকে ৫০ হাজার টাকার জরিমানা করলেন। বিচারপতি নির্দেশ দেন, আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে স্কুল সার্ভিস কমিশনের কাছে এই টাকাটা জমা দিতে হবে প্রীতিকে।

 

 

২০১৮ সালে চাকরির প্যানেল প্রকাশিত হয়। নবম, দশম, একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণীর জন্য। ২০২২সালের জুলাই মাসে আদালতের নির্দেশে বিভাজন সহ নম্বর প্রকাশ করে এসএসসি।  প্রীতি যোগ্য হওয়া সত্ত্বেও সেই সময় তিনি চাকরির দাবি করেননি।  ফলে অন্যান্য প্রার্থীদের নবম-দশম শ্রেণীতে চাকরি নিয়ে নেওয়া হয়। 

From around the web

Education

Headlines